RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ২৫ অক্টোবর ২০২০ ||  কার্তিক ১০ ১৪২৭ ||  ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ওবামাকেয়ার নির্মূলে সুপ্রিম কোর্টকে ব্যবহার করছেন ট্রাম্প: বাইডেন

ছাবেদ সাথী, নিউইয়র্ক প্রতিনিধি  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৩:৩৪, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ০৯:০২, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
ওবামাকেয়ার নির্মূলে সুপ্রিম কোর্টকে ব্যবহার করছেন ট্রাম্প: বাইডেন

যুক্তরাষ্ট্রে ওবামাকেয়ার নির্মূলের লক্ষ্যে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প করোনা মহামারির মধ্যেই সুপ্রিম কোর্টে নতুন বিচারপতি নিয়োগে তড়িঘড়ি করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন।

আগামী ৩ নভেম্বর নির্বাচন। আর মাত্র কয়েক সপ্তাহ বাকি। এ অবস্থায় সুপ্রিম কোর্টের বিচারক নিয়োগ প্রসঙ্গে উইলমিংটনে রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) সাংবাদিকদের বাইডেন বলেন, ট্রাম্প ও রিপাবলিকানরা অ্যাফোর্ডেবল কেয়ার অ্যাক্ট কিংবা ওবামাকেয়ারকে নির্মূলে একে একটি সুযোগ হিসেবে দেখছেন। মনোনয়ন নিশ্চিতে নির্বাচন পর্যন্ত বিলম্ব করতে সিনেটের প্রতি আবারও আহ্বান জানিয়েছেন বাইডেন।

আগাম ভোট ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট নির্বাচন চলছে। এ অবস্থায় দেশের ইতিহাসে এর আগে কখনও সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি মনোনয়ন ও নিয়োগের ঘটনা ঘটেনি।

ট্রাম্প নতুন বিচারপতি হিসেবে এমি কনে ব্যারেটকে মনোনয়ন দিয়েছেন। ধর্মীয় বিশ্বাসের দিক থেকে ব্যারেট রক্ষণশীল। তিনি যার স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন সেই প্রয়াত বিচারপতি রুথ বাডার গিন্সবার্গ ছিলেন উদার ও প্রগতিশীল।

সিনেট ভোটাভুটিতে ব্যারেট নির্বাচিত হলে যে বিষয়গুলো নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে বিভক্তি রয়েছে, যেমন গর্ভপাত, বন্দুক অধিকার থেকে স্বাস্থ্য সুরক্ষার মতো বিষয়গুলোতে প্রভাব পড়বে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। এ বিষয়গুলো নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বি অবস্থান নিয়েছে দেশটির প্রধান দুটি দল ডেমোক্র্যাট ও রিপাবলিকান।

এদিকে, সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতির এ পদ আজীবনের। এর মানে ব্যারেট এ পদে আসীন হলে এই প্রথম দেশের সর্বোচ্চ আদালতে রক্ষণশীলদের ব্যাপক প্রভাব তৈরি হবে। এ সুযোগ হাতছাড়া না করতেই ট্রাম্প যথেষ্ট তৎপরতার সঙ্গে বিচারপতি নিয়োগে উঠেপড়ে লেগেছেন বলে দাবি করছেন সমালোচকরা।  মার্কিন সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে রবিবার ট্রাম্প মনোনয়ন নিশ্চিতে আশা প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, নির্বাচনের আগে খুব সহজেই আমরা কাজটি শেষ করতে যাচ্ছি।

উল্লেখ্য, কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনিটে ১০০ আসনের মধ্যে ৫৩টি রিপাবলিকানদের। তাই আশা করা হচ্ছে ব্যারেটের মনোনয়ন চূড়ান্ত করতে তাদের খুব একটা বেগ পেতে হবে না। ইতোমধ্যে সিনেটে সংখ্যাগরিষ্ঠ নেতা মিচ ম্যাককনেল ঘোষণা দিয়েছেন, চলতি বছরেই এ বিষয়ে ভোটাভুটি অনুষ্ঠিত হবে।

ছাবেদ সাথী/সাইফ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়