ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ১১ আগস্ট ২০২২ ||  শ্রাবণ ২৭ ১৪২৯ ||  ১২ মহরম ১৪৪৪

স্পেনে ‘বৈধপথে রেমিট্যান্স পাঠানো’ নিয়ে মতবিনিময় সভা

কবির আল মাহমুদ, স্পেন || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:৩৩, ২৫ জুন ২০২২   আপডেট: ১১:৩৬, ২৫ জুন ২০২২
স্পেনে ‘বৈধপথে রেমিট্যান্স পাঠানো’ নিয়ে মতবিনিময় সভা

বৈধপথে রেমিট্যান্স পাঠাতে স্পেন প্রবাসীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সারওয়ার মাহমুদ।

বুধবার (২২জুন) সকালে মাদ্রিদে বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেনের হলে বাংলাদেশে বৈধ পথে রেমিট্যান্স প্রেরণে উদ্বুদ্ধকরণের লক্ষ্যে মতবিনিময় সভাটি অনুষ্ঠিত হয়। ‘বৈধ পথে টাকা পাঠাই, দেশের উন্নয়নে গর্বিত অংশীদার হই’ শীর্ষক এই সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ আহ্বান জানান রাষ্ট্রদূত।

বাংলাদেশ দূতাবাসের প্রথম সচিব (শ্রম) মো. মোতাসিমুল ইসলামের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত এ মতবিনিময় সভায় বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে প্রবাসীদের অবদান অপরিসীম উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সরাওয়ার মাহমুদ বলেন, ‘ব্যাংকিং চ্যানেলে অর্থ প্রেরণ করলে বাংলাদেশ সরকারের প্রণোদনা প্রাপ্তির সুযোগ যেমন থাকে, তেমনি মাতৃভূমি বাংলাদেশের উন্নয়নেও ভূমিকা রাখা সম্ভব।’

২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে এক নতুন গতি সঞ্চার হবে আশাবাদ ব্যক্ত করে রাষ্ট্রদূত সরওয়ার মাহমুদ বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিচক্ষণ ও দূরদর্শী নেতৃত্বে বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধিত হয়েছে।’ রেমিট্যান্স পাঠানোর ক্ষেত্রে সরকারের বিভিন্ন প্রণোদনা ও সুবিধাসমূহ স্পেনের প্রবাসী বাংলাদেশিদের কাছে ব্যাপকভাবে তুলে ধরতে কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ, মানি ট্রান্সফার এজেন্ট এবং সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের প্রতি আহ্বান জানান।

তিনি ইউরোপে প্রবাসী বাংলাদেশিদের বসবাসের দিক দিয়ে স্পেন দ্বিতীয় স্থানে অবস্থান করছে জানিয়ে বলেন, ‘স্পেন থেকে এখনো রেমিটেন্স প্রেরণের পরিমাণ প্রত্যাশিত অনুপাতে হচ্ছে না।’ বর্তমান বিশ্ববাস্তবতায় একদিকে করোনা মহামারির নেতিবাচক প্রভাব, অন্যদিকে রাশিয়া-ইউক্রেন পরিস্থিতিতেও রেমিট্যান্সের প্রাসঙ্গিকতা ও প্রয়োজনীয়তা পূর্বের যে কোনো সময়ের চেয়ে বেশি বলে উল্লেখ করেন রাষ্ট্রদূত। এছাড়া মানি ট্রান্সফার সংস্থাগুলোর অবদানের কথা উল্লেখ করে তাদের সহযোগিতা ও প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখার পাশাপাশি স্পেনের সকল প্রবাসীদের কাছে বাংলাদেশে বৈধ উপায়ে রেমিট্যান্স প্রেরণের অনুরোধ জানান।

রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ২০৪১ রূপকল্প এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ‘সোনার বাংলা’ বাস্তবায়নে প্রবাসীদেরকে আরো কার্যকরী ভূমিকা রাখার উদাত্ত আহ্বান জানান। পাশাপাশি বিভিন্ন মানিট্রান্সফার সংস্থার ‘কম্প্লায়ান্স ইস্যু’ বর্ণনা করে সেসব সমস্যা সমাধানে ভূমিকা রাখার জন্য দূতাবাসকে অনুরোধ জানান।

মতবিনিময় সভায় বাংলাদেশ দূতাবাসের মিশন উপ-প্রধান এটিএম আব্দুর রউফ মন্ডল, বাণিজ্যিক সচিব রেদোয়ান আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

রেমিট্যান্স প্রবাহ সহজীকরণ ও ত্বরান্বিত করার বিষয়ে তাদের স্ব স্ব মতামত ও চিন্তা ভাবনা তুলে ধরেন। সরকার ঘোষিত প্রণোদনাসমূহ কমিউনিটিকে সম্পৃক্ত করে  প্রচার চালানো, রেমিট্যান্স পাঠানোর ক্ষেত্রে প্রণোদনার হার বৃদ্ধি, ওয়েজ আর্নার বোর্ডের সুবিধাসমূহ যাতে প্রবাসীরা সহজে পেতে পারে সে ব্যবস্থা করাসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ তুলে ধরেন প্রবাসীরা। এতে করে বৈধ পন্থায় রেমিট্যান্স প্রবাহের গতি আরো বৃদ্ধি পাবে বলে তারা উল্লেখ করেন। এসময় দূতাবাসের পক্ষ থেকেও করণীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলে জানানো হয়।

রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সারওয়ার মাহমুদ স্পেন প্রবাসীদের বাংলাদেশে রেমিট্যান্স পাঠাতে উদ্বুদ্ধ করতে রেমিট্যান্স পুরস্কার প্রদানের ঘোষণা করেন। ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান পর্যায়ে বাংলাদেশে সর্বাধিক রেমিট্যান্স পাঠানো ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে প্রতি বছর ১৮ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবসে এ পুরস্কার দেওয়া হবে।

মতবিনিময় সভায় স্থানীয় বাংলাদেশি কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ ছাড়াও ব্যবসায়ী, মানি ট্রান্সফার এজেন্ট এবং সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেন এর সভাপতি আল মামুন, সাবেক সভাপতি জামাল উদ্দিন মনির, সাধারণ সম্পাদক মুরাদ মজুমদার, গ্রেটার ঢাকা অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেন-এর সাধারণ সম্পাদক ও মানিট্রান্সফার ব্যবসায়ী মিল্টন ভূইয়া কচি, কমিউনিটি নেতা এসএম আহমেদ মনির, মানিট্রান্সফার ব্যবসায়ী মোহাম্মদ আবু বকর, কাইয়ূম আহমেদ মাসুক, হোসাইন ইকবাল, মঈন উদ্দিন, স্পেন বাংলা প্রেসক্লাবের সভাপতি সাহাদুল সুহেদ, সাংবাদিক একেএম জহিরুল ইসলাম প্রমুখ।

/মারুফ/

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়