ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ৩০ মার্চ ২০২৩ ||  চৈত্র ১৭ ১৪২৯

দেশের সব অর্জনে রেমিটেন্স যোদ্ধারা সরাসরি সম্পৃক্ত: রাষ্ট্রদূত আবু জাফর

মুহাম্মদ শাহ জাহান, ইউএই থেকে  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৪:৪৩, ৩১ জানুয়ারি ২০২৩   আপডেট: ১৪:৪৬, ৩১ জানুয়ারি ২০২৩
দেশের সব অর্জনে রেমিটেন্স যোদ্ধারা সরাসরি সম্পৃক্ত: রাষ্ট্রদূত আবু জাফর

ডিসেম্বর মাসে ১৩০ কোটি ডলার রেমিটেন্স পাঠিয়েছে প্রবাসী বাংলাদেশিরা। এখন দেশের সব অর্জনের সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত রেমিটেন্স যোদ্ধারা । একদিকে রেমিটেন্স পাঠিয়ে দেশের অর্থনীতিকে যেমন সমৃদ্ধিশালী করছেন তারা, অন্যদিকে দেশের সৃষ্টি কৃষ্টি ইতিহাস ঐতিহ্যকে তুলে ধরছেন বিশ্ব মঞ্চে।  

বলেছেন, সংযুক্ত আরব আমিরাতে বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত মুহাম্মদ আবু জাফর। 

রোববার (২৯ জানুয়ারি) আরব আমিরাতের রাজধানী আবুধাবিতে জাঁকজমকপূর্ণভাবে দেশের ঐতিহ্যবাহী বনভোজন উদযাপন করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাতস্থ মহিলাদের সবচেয়ে প্রাচীনতম ও প্রভাবশালী সংগঠন বাংলাদেশ মহিলা সমিতি ইউএই।  রাষ্ট্রদূত মুহাম্মদ আবু জাফর এ উৎসবে প্রধান অতিথি ছিলেন।

আবুধাবির আল বাহিয়া পার্কে সংগঠনের সভানেত্রী, রাষ্ট্রদূত পত্নী মিসেস সালমা জাফরের সভাপতিত্বে ও সংগঠনের প্রভাবশালী সাধারণ সম্পাদক পপি রহমানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত এ উৎসব বাংলাদেশিদের মিলন মেলায় রূপ নেয়। 

এসময় রাষ্ট্রদূত বলেন, সামাজিক বন্ধনকে আরও শক্তিশালী করতে এবং সুন্দর শান্তিপূর্ণ বাংলাদেশি কমিউনিটি গঠনে এ ধরনের অনুষ্ঠান খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। তাই অক্লান্ত পরিশ্রম করে এ মিলন মেলার আয়োজন করায় তিনি মহিলা সমিতিকে ধন্যবাদ জানান এবং পাশে থাকার আশা ব্যক্ত করেন। 

তিনি বলেন, বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার অর্ধেক নারী, তাদেরকে জাতীয় কর্মকাণ্ড থেকে দুরে সরিয়ে রাখলে দেশের জাতীয় উন্নয়ন তরান্বিত হবে না। তাই মহিলাদের সম্পৃক্ত করে তাদের ট্যালেন্টকে কাজে লাগাতে হবে। 

এছাড়াও কর্মজীবী মহিলা ও উদ্যোক্তা হিসাবে যেসব নারীরা আমিরাতে কাজ করেন বা করতে চান প্রয়োজনে তাদেরও সহযোগিতার আশ্বাস দেন রাষ্ট্রদূত মুহাম্মদ আবু জাফর। 

উৎসবে শিশুদের বিভিন্ন রকমের ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, পুরুষ মহিলাদের ঐতিহ্যবাহী বালিশ খেলাসহ নানা রকমের প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। পাশাপাশি অনুষ্ঠানে প্রাচীনতম এ সংগঠনের মনোগ্রাম উন্মোচন করা হয়। 

প্রতিযোগিতা শেষে বিজয়ীদের মাঝে আকর্ষণীয় পুরস্কার প্রদান করেন রাষ্ট্রদূত সহ আগত অতিথিরা। 

এছাড়াও বাংলাদেশ মহিলা সমিতির পক্ষ থেকে সকল অতিথিদের মাঝে বিশেষ আকর্ষণীয় পুরস্কার বিতরণ করা হয়।    

বনভোজন উপলক্ষে আয়োজিত এ মিলন মেলায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দূতাবাসের মিশন প্রধান মিজানুর রহমান, সিআইপি মুহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী, বঙ্গবন্ধু পরিষদের সিনিয়র সহ সভাপতি ইমরাদ হোসেন ইমু, সহ সভাপতি শওকত আকবর, যুগ্ম সম্পাদক মুহাম্মদ মইনুদ্দিন,  ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আশীষ কুমার বড়ুয়া। 

এছাড়াও কমিউনিটি নেতা, ব্যবসায়ী, সাংবাদিক, শিক্ষক, প্রকৌশলীসহ বিভিন্ন অঙ্গনে কর্মরত প্রবাসী বাংলাদেশিরা উপস্থিত ছিলেন। 

অনুষ্ঠানের বিভিন্ন ইভেন্ট পরিচালনা করেন সংগঠনের সহ সভাপতি জাকিয়া হাসান, সহ সাধারণ সম্পাদক মাহফুজা নাসরিন খান ঝিনুক, যুগ্ম সম্পাদক ফারজানা করিম এ্যানি, অর্থ সম্পাদক নিরু চুন্নু, সাংস্কৃতিক সম্পাদক দিলোয়ারা সুমি, সাংগঠনিক সম্পাদক নাজনীন এজাজ, সামাজিক সম্পাদক কানিজ ফাতেমা, উপদেষ্টা মমতাজ ফারুক লিপি সহ সংগঠনের গুরুত্বপূর্ণ সম্পাদক ও সদস্য মণ্ডলীরা। 

সবশেষে সমাপনী বক্তব্যে অনুষ্ঠানের সভাপতি রাষ্ট্রদূত পত্নী মিসেস সালমা জাফর বলেন, আমিরাতের প্রাচীনতম সংগঠন এটি। তাই আশা করছি প্রবাসে অবস্থানরত মহিলারা এই সমিতির ছায়াতলে এসে নারীর অগ্রযাত্রায় ভূমিকা রাখবেন। 

উপস্থিত সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে মিলন মেলার সমাপ্তি ঘোষণা করেন তিনি।

/টিপু/

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়