ঢাকা, রবিবার, ১২ মাঘ ১৪২৬, ২৬ জানুয়ারি ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

‘তাসলিমার সন্তানদের দেখবে কে’

ফরহাদ হোসেন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৭-২১ ১০:৪৮:১৩ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৭-২২ ৯:৪৮:৫৮ এএম
তাসলিমার গ্রামের বাড়ি, ইনসেটে তাসলিমা (ছবি : রাইজিংবিডি)

লক্ষ্মীপুর সংবাদদাতা : রাজধানীর উত্তর বাড্ডায় ছেলে ধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে  নিহত তাসলিমা বেগম রেনুর গ্রামের বাড়ি লক্ষ্মীপুরে চলছে শোকের মাতম। 

রোবাবার নিহতের গ্রামের বাড়ি জেলার রায়পুর উপজেলার সোনাপুর গ্রামে গিয়ে এ চিত্র দেখা যায়।

মিথ্যা অজুহাতে এই হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন স্থানীয়রা। এদিকে এ ঘটনায় বাড্ডা থানায় নিহতের বোনের ছেলে নাসির উদ্দিন টিটু অজ্ঞাত ৪০০ থেকে ৫০০ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন।

তাসলিমা বেগম সোনাপুর গ্রামের মৃত আবদুল মান্নানের মেয়ে। তিনি একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কম্পিউটার অপারেটর হিসেবে চাকরি করতেন। তার মাহিন হোসেন (১০) নামে এক ছেলে ও তুবা তাসনিম (৪) নামে এক মেয়ে রয়েছে।

নিহতের বোন সেলিনা আক্তার জানান, ছোটবেলা থেকে তাসলিমা বাবার সঙ্গে ঢাকা থাকত। উত্তর বাড্ডার তসলিম উদ্দিন নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে তাসলিমার বিয়ে হয়। তাদের এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। দুই বছর আগে পারিবারিক কলহের কারণে তাদের বিচ্ছেদ হয়। 

সেলিনা আক্তার বলেন, ‘২০ জুলাই তাসলিমা মেয়েকে স্কুলে ভর্তি করার জন্য খোঁজ নিতে উত্তর বাড্ডা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যায়। সে সময় স্থানীয়রা তাকে গণপিটুনি দিয়ে হত্যা করে। এখন তার সন্তানদের কী হবে? কে দেখবে তাদের।’

তাসলিমার চাচাতো ভাই হারুনুর রশিদ ও এলাকাবাসী বলেন, ‘তাসলিমাকে মিথ্যা অজুহাতে যারা মেরে ফেলেছে, তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই। যাতে তাসলিমার মত অন্য কাউকে দুনিয়া ছেড়ে চলে যেতে না হয়।’

এ বিষয়ে স্থানীয় ইউনিয়ন সদস্য রিয়াজ উদ্দিন বলেন, ‘নিহতের লাশ গ্রামের বাড়িতে আনা হচ্ছে। পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।’

তিনি এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন।  ছেলে ধরা গুজব রটানাকারীকে শনাক্ত করে যথাযথ শাস্তির ব্যবস্থা করার জন্য প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান রিয়াজ উদ্দিন।

 

রাইজিংবিডি/লক্ষ্মীপুর/২১ জুলাই ২০১৯/ফরহাদ হোসেন/ইভা

     
 

আরো খবর জানতে ক্লিক করুন : লক্ষ্মীপুর, চট্টগ্রাম বিভাগ