ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৪ আশ্বিন ১৪২৬, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

চেক প্রতারণা : বিমানবন্দরে গ্রেপ্তার শিল্পপতির স্ত্রী

রেজাউল করিম : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৮-২০ ১:১৭:১২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৮-২০ ১:১৭:১২ পিএম
চেক প্রতারণা : বিমানবন্দরে গ্রেপ্তার শিল্পপতির স্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম : দীর্ঘদিন কানাডায় থেকে দেশে ফিরতেই বিমানবন্দরে গ্রেপ্তার হয়েছেন চট্টগ্রামের বাগদাদ গ্রুপের চেয়ারম্যান ফেরদৌস খান আলমগীরের স্ত্রী মেহেরুন নেছা (৫০)। মঙ্গলবার ভোররাতে ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন পুলিশ এই শিল্পপতির স্ত্রীকে গ্রেপ্তারের পর চট্টগ্রামের খুলশি থানা পুলিশের নিকট হস্তান্তর করেছে।

মেহেরুন নেছার বিরুদ্ধে চেক প্রতারণা ও খেলাপি ঋণের দায়ে কমপক্ষে ১৫টি মামলা আছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। মেহেরুন নেছাকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন খুলশি থানার অফিসার ইনচার্জ প্রণব চৌধুরী। গ্রেপ্তারকৃত মেহেরুন নেছা বর্তমান চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান জহিরুল আলম দোভাষের ভাতিজি।

পুলিশ জানায় মেহেরুন নেছার বিরুদ্ধে চেক প্রতারণা ও ঋণ খেলাপির দায়ে বেসরকারি আর্থিক প্রতিষ্ঠান ফিনিক্স ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেডের দায়ের করা সর্বমোট ১৫টি মামলা রয়েছে। এসব মামলার মধ্যে ৯টি মামলায় তার বিভিন্ন মেয়াদে সাজা হয়েছে। বেশ ক’বছর আগে একাধিক মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হলে মেহেরুন নেছা স্বপরিবারে কানাডা পাড়ি জমান।

এরই মধ্যে তার বিরুদ্ধে দায়েকৃত একাধিক মামলা সাজা ঘোষণা করে আদালত। সাজা ও গ্রেপ্তারি পরোয়ানার প্রেক্ষিতে পুলিশ মেহেরুন নেছার বিষয়ে ইমিগ্রেশন পুলিশকে আগে থেকেই জানিয়ে রাখেন। দীর্ঘদিন পর মঙ্গলবার ভোরে মেহেরুন নেছা কানাডা থেকে দেশে ফেরেন। বিমান থেকে নামার পরই ঢাকা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমাবন্দরের ইমিগ্রেশন পুলিশ মেহেরুন নেছাকে গ্রেপ্তার করে হেফাজতে নেন। এর পরই তাকে চট্টগ্রামের খুলশি থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন।

মেহেরুন নেছার স্বামী বাগদাদ গ্রুপের চেয়ারম্যান ফেরদৌস খান আলমগীরের বিরুদ্ধেও চেক প্রতারণা ও ঋণ খেলাপির একাধিক মামলা রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছেন। তারা পুরো পরিবার মিলে কানাডায় অবস্থান করায় পুলিশ দীর্ঘদিন তাদের গ্রেপ্তার করতে পারেননি।

 

রাইজিংবিডি/চট্টগ্রাম/২০ আগস্ট ২০১৯/রেজাউল/সনি

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন