ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||  আশ্বিন ৯ ১৪২৭ ||  ০৬ সফর ১৪৪২

শ্রমিক ধর্মঘটে রাষ্ট্রায়ত্ত ৯ পাটকলের উৎপাদন বন্ধ

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৪:১৩, ৩ ডিসেম্বর ২০১৯   আপডেট: ০৫:২২, ৩১ আগস্ট ২০২০
শ্রমিক ধর্মঘটে রাষ্ট্রায়ত্ত ৯ পাটকলের উৎপাদন বন্ধ

বকেয়া মজুরি পরিশোধ ও মজুরি কমিশন বাস্তবায়নসহ ১১ দফা দাবিতে ধর্মঘট শুরু করেছে খুলনা অঞ্চলের রাষ্ট্রায়ত্ত নয় পাটকলের শ্রমিকরা।

মঙ্গলবার থেকে ২৪ ঘণ্টার ধর্মঘট কর্মসূচি শুরু করে তারা।

পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী সকাল ৬টা থেকে বুধবার সকাল ৬টা পর্যন্ত মিলের মেশিন বন্ধ রেখে এ কর্মসূচি পালন করছেন তারা। এ কারণে রাষ্ট্রায়ত্ব নয় পাটকলের উৎপাদন বন্ধ হয়ে গেছে।

সকল মিলের উৎপাদন বন্ধ রেখে ধর্মঘটের সমর্থনে খুলনার ক্রিসেন্ট, প্লাটিনাম, খালিশপুর, দৌলতপুর, স্টার, ইস্টার্ন, আলিম এবং যশোরের জেজেআই ও কার্পেটিং জুট মিলের শ্রমিকরা সড়কে বিক্ষোভ প্রদর্শন করছে। বিক্ষুব্ধু শ্রমিকরা মিল এলাকার বিভিন্ন সড়কে টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে যানবাহন চলাচলও বন্ধ করে দিয়েছে। বিকেল ৪টায় স্ব স্ব মিল গেটে সভা করার ঘোষণাও দিয়েছে শ্রমিকরা।

একই দাবিতে আগামী ৮ ডিসেম্বর রোববার থেকে আমরণ অনশনের সমর্থনে সকল মিলে একযোগে গেট মিটিং ও শপথ গ্রহণ এবং ১০ ডিসেম্বর সকাল ৮টা থেকে শ্রমিকদের পরিবার পরিজন নিয়ে স্ব-স্ব মিল গেটে আমরণ গণঅনশনের কর্মসূচি রয়েছে।

রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল সিবিএ-নন সিবিএ সংগ্রাম পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. মুরাদ হোসেন রাইজিংবিডিকে জানান, খুলনা অঞ্চলের নয় পাটকলের প্রায় ৩০ হাজার শ্রমিকের ৯ থেকে ১২ সপ্তাহের মজুরি বকেয়া রয়েছে।

এছাড়া সহস্রাধিক কর্মকর্তা-কর্মচারীর দুই থেকে চার মাসের বেতন বকেয়া রয়েছে। এর ফলে শ্রমিক-কর্মচারীরা তাদের পরিবারের সদস্যদের নিয়ে অর্ধাহারে-অনাহারে দিন কাটাচ্ছে। একাধিকবার আশ্বাস দেওয়ার পরও বিজেএমসি এখনো পাটকল শ্রমিকদের মজুরি কমিশন কার্যকর করেনি। ফলে বাধ্য হয়ে কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে।

এসব কর্মসূচিতে উপস্থিত রয়েছেন সংগ্রাম পরিষদের নেতা মো. মুরাদ হোসেন, মো. সোহরাব হোসেন, আবু হানিফ, শাহানা শারমিন, হুমায়ুন কবির খান, মো. খলিলুর রহমান, কওসার আলী, সেলিম শেখ, আবু দাউদ দ্বীন মোহাম্মাদ, মো. ইব্রাহীম, আক্তার হোসেন, বেল্লাল হোসেন মল্লিক, মো. মান্নান, কাজী মাসুম প্রমুখ।

এর আগে ধর্মঘটের সমর্থনে সোমবার খুলনার আটরা শিল্পাঞ্চলের ইস্টার্ন ও আলীম জুট মিলের শ্রমিকরা খুলনা-যশোর মহাসড়কে বিক্ষোভ মিছিল করে। মিছিল শেষে ইস্টার্ণগেটে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তৃতা করেন ইস্টার্ণ সিবিএ সভাপতি মো. আলাউদ্দিন, আলিম সিবিএ সভাপতি মো. সাইফুল ইসলাম লিটু, সাধারণ সম্পাদক আ. হামিদ সরদার, মো. জাকারিয়া হোসেন, হক মহলদার, আ. সালাম, হাফিজুর রহমান, নজরুল ইসলাম, আলতাফ হোসেন, বদরউদ্দীন বিশ্বাস, সরদার আলমগীর হোসেন, আফসার সরদার, ইউসুফ গাজী, ইজদান আলী, নাজমুল সরদার ও ইদ্রিস আলী প্রমুখ। অন্যান্য মিলেও অনুরূপ বিক্ষোভ প্রদর্শন করা হয়।



খুলনা/নূরুজ্জামান/বুলাকী

রাইজিংবিডি.কম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়