ঢাকা, রবিবার, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

প্রধানমন্ত্রীকে দেখে মানুষের জন্য কাজ করার সাহস পাই : মাশরাফি

নড়াইল সংবাদদাতা : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১২-০৩ ১০:০০:৪৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১২-০৪ ৭:৪০:০৩ পিএম

নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মুর্তজা বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী সারা বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়ে পিতার স্বপ্ন পূরণে এগিয়ে যাচ্ছেন। তাকে দেখে মানুষের জন্য কাজ করার সাহস পাই।

মঙ্গলবার দুপুরে নড়াইলের সুলতান মঞ্চ চত্বরে জেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে বিশেষ বক্তা হিসেবে এসব কথা বলেন তিনি।

বাংলাদেশ ওয়ানডে ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা বলেন, তার (প্রধানমন্ত্রী) হাত ধরে আমি রাজনীতিতে এসেছি। প্রধানমন্ত্রীকে আমি নড়াইলবাসীর সালাম পৌঁছে দিতে চাই।

আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কথার বাইরে আমি থেকে শুরু করে যে কেউ কোনো কথা বললে আপনারা সেটা মেনে নেবেন না। আপনারা প্রধানমন্ত্রী সঙ্গে ছিলেন, থাকবেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হাতকে শক্ত করার জন্য যা করার তা করবেন।

মাশরাফি বিন মুর্তজা আরো বলেন, আমরা যারা রাজনীতি করি, তারা গ্রুপিং করব না। দলের স্বার্থে এটা বন্ধ করা প্রয়োজন। আমরা সবাই প্রধানমন্ত্রীর হয়ে কাজ করব। আমরা সবাই এক জায়গায় হবো এবং প্রধানমন্ত্রীর দিকনির্দেশনা অনুযায়ী কাজ করব। অনেকে মনে করেন, দল করে কী পেয়েছি? আমি মনে করি, ইউনিয়ন থেকে শুরু করে আমাদের পর্যন্ত যে সম্মান, তা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আছেন বলেই আমরা সেটা পেয়েছি।

নড়াইলের উন্নয়নের ব্যাপারে তিনি বলেন, আমরা নড়াইলকে শক্তিশালী জেলা হিসেবে দাঁড় করাতে চাই। নড়াইলকে গড়ার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে পদক্ষেপগুলো নিয়েছেন, তা বাস্তবায়নে আমাদের এক হয়ে কাজ করতে হবে। এজন্য আপনাদের সহযোগিতা প্রয়োজন। আপনার সবাই ঐক্যবদ্ধ থাকলে নড়াইলকে সমৃদ্ধ জেলা করতে পারব।

সম্মেলনের প্রধান অতিথি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের উদ্দেশে মাশরাফি বিন মুর্তজা বলেন, নড়াইলকে সমৃদ্ধশালী করতে সহযোগিতা করবেন। আমাদের যে সমস্যাগুলো আছে, তা বিবেচনায় নেবেন।

দুর্নীতির ব্যাপারে তিনি বলেন, দুর্নীতির ক্ষেত্রে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জিরো টলারেন্স নীতি ঘোষণা করেছেন। আমি সিনিয়র নেতাসহ সবাইকে বলব, আপনারও দুর্নীতির ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতি মেনে চলবেন।

মাদকের ব্যাপারে মাশরাফি বিন মুর্তজা বলেন, আমরা সবাই জানি, কারা মাদকের সঙ্গে জড়িত। সবার সহযোগিতা পেলে সমাজ থেকে মাদক রুখে দিতে পারব।

তৃণমূল নেতাকর্মীদের বিষয়ে তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সব সময় বলেন, তৃণমূল আমার প্রাণ। তাই এখন সময় এসেছে তৃণমূলকে সহযোগিতা করার। তৃণমূলে এমনও নেতা আছেন যারা দিনের পর দিন খেয়ে না খেয়ে দীর্ঘদিন দল পরিচালনা করে আসছেন। তারা নিজেদের সন্তানকেও চাকরি দিতে পারেননি। নিজেদের অবস্থান তৈরি করতে পারেননি। তাদের সম্মানিত করতে হবে।

তিনি বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে গুজব নিয়ে আমরা অনেক সমস্যায় আছি। আশা করি, কেউ গুজবে কান দেবেন না।

মাশরাফি বিন মুর্তজা বলেন, জাতীয় নির্বাচনের সময় যারা নিজেদের পকেটের টাকা খরচ করে আমাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন, তাদের ধন্যবাদ জানাই।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোসের সভাপতিত্বে ত্রিবার্ষিক সম্মেলনের উদ্বোধন করেন দলের কেন্দ্রীয় সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য পীযূষ কান্তি ভট্টাচার্য্য। প্রধান বক্তা ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান। সম্মানিত অতিথি ছিলেন যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ। সম্মানিত বক্তা শেখ তন্ময় এমপি।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন জাতীয় সংসদের হুইপ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি, আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য এস এম কামাল হোসেন ও পারভীন জামান কল্পনা। বিশেষ বক্তা ছিলেন নড়াইল-১ আসনের সংসদ সদস্য কবিরুল হক মুক্তি ও নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য বাংলাদেশ ওয়ানডে ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সোহরাব হোসেন বিশ্বাস, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর বিশ্বাস। সভা সঞ্চালনা করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন খান নিলু।

সম্মেলন শেষে নতুন কমিটির সভাপতি হিসেবে বর্তমান সভাপতি অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোস ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে বর্তমান সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন খান নিলু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর বিশ্বাস এবং আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান জিন্নাহর নাম ঘোষণা করেন ওবায়দুল কাদের।


নড়াইল/ফরহাদ খান/রফিক

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন