ঢাকা, শনিবার, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

সিলেটে মাদ্রাসা মাঠে ৬০ ফুটের নৌকা!

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১২-০৪ ৯:২৪:১৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১২-০৪ ৯:২৪:১৭ পিএম

সিলেট আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে নির্মাণ করা হয়েছে ৬০ ফুটের নৌকা। এর প্রস্থ ৩০ ফুট। এ নৌকায় আসন ২০০টি। অবাক হওয়ার কিছু নেই; নৌকা বললেও এটি নৌকা নয়, নৌকার আদলে নির্মিত মঞ্চ। সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে এই মঞ্চ নির্মাণ করা হয়েছে। ইতোমধ্যে নৌকার আকৃতিও ফুটে উঠেছে মঞ্চে।

বৃহস্পতিবার সকালে এই মঞ্চেই বসবেন দলের কেন্দ্রীয় অতিথিরা।

বুধবার বিকেলে মাদ্রাসা মাঠে গিয়ে দেখা যায়, মঞ্চ এবং প্যান্ডেল প্রস্তুত। কয়েক জন শ্রমিক সেখানে কাজও করছেন। মাঠে অতিরিক্ত বালু থাকায় সিটি কর্পোরেশনের পানির গাড়ি দিয়ে পানি ছিটানো হয়েছে। মাঠের পাশে পড়ে থাকা আবর্জনা পরিষ্কার করছেন একদল পরিচ্ছন্ন কর্মী। এছাড়া কয়েকজন ব্যানার-ফেস্টুন সাটাচ্ছেন। একই সঙ্গে মঞ্চের পাশে কয়েকজন পুলিশ সদস্যকে নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করতে দেখা গেছে। সম্মেলনস্থলে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরাও বসানো হয়েছে।

মাঠের প্রবেশদ্বারে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশাল আকৃতির দুটি ছবি রাখা হয়েছে। এর দুই পাশে যথাক্রমে কেন্দ্রীয় ১০ নেতার ছবি টাঙানো আছে, যারা সম্মেলনে অতিথি হিসেবে থাকবেন। একই সঙ্গে পুরো চৌহাট্টা পয়েন্ট থেকে রিকাবীবাজার হয়ে তালতলা পর্যন্ত সড়কের উভয় পাশে বড় বড় ব্যানার-ফেস্টুন আর বিলবোর্ড সাঁটানো হয়েছে; এক্ষেত্রে বাদ পড়েনি রোড আইল্যান্ডও। নেতাদের অনুসারীরা মূলত এসব ব্যানার-ফেস্টুন আর বিলবোর্ড টাঙিয়েছেন।

সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক জগলু চৌধুরী বলেন, নৌকার আদলে মঞ্চ নির্মাণ করা হয়েছে। প্যান্ডেল নির্মাণ কাজও শেষ। রাতের মধ্যে সাউন্ড সিস্টেম এবং সম্মেলনস্থলে চেয়ার বসানোর কাজ শেষ হবে। সম্মেলন শেষে বিকেলে কাউন্সিল অধিবেশন আয়োজন হওয়ার কথা রয়েছে। এ জন্য রিকাবীবাজার কবি নজরুল অডিটোরিয়ামও প্রস্তুত করে রাখা হয়েছে বলে জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় জাতীয় এবং দলীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন দলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এমপি। সভাপতিত্ব করবেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমান।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপি; প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ এমপি; বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো থাকবেন কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন ও অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, কেন্দ্রীয় সদস্য অধ্যাপক মো. রফিকুর রহমান, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও সিলেট-১ আসনের সংসদ সদস্য ড. এ কে আব্দুল মোমেন, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ও সিলেট-৪ আসনের সংসদ সদস্য ইমরান আহমদ।

স্বাগত বক্তব্য দেবেন কেন্দ্রীয় সদস্য ও সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরান; পরিচালনা করবেন সিলেট জেলার সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী ও মহানগরের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ। সম্মেলনে জেলা ও মহানগরের ডেলিগেট ছাড়াও হাজারের উপরে কাউন্সিলর উপস্থিত থাকবেন।

সর্বশেষ ২০১১ সালে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। দীর্ঘ আট বছর পর সম্মেলন আয়োজন করায় নেতাকর্মীদের মাঝে প্রাণ ফিরেছে। ইতোমধ্যে জেলার সবকটি উপজেলার কাউন্সিল শেষ হয়েছে। সম্মেলন সফলে প্রচারণা চলমান আছে। বুধবার নগরীতে ট্রাকযুগে মাইকে বাজানো হচ্ছে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ। একই সঙ্গে বিভিন্ন স্থানে সম্মেলন স্বাগত জানিয়ে মিছিল বের করা হয়েছে।

সিলেট মহানগরের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ জানান, সম্মেলন ঘিরে সিলেট নগরীতে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। ইতোমধ্যে সব প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। ফেস্টুন, তোরণ, ব্যানার ছাড়াও নগরীতে আলোকসজ্জা করা হয়েছে। সব মিলিয়ে একটি সুন্দর ও সার্থক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

সম্মেলন ঘিরে নিশ্চিন্দ্র নিরাপত্তা নিয়েছে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ (এসএমপি)। সম্মেলনস্থলে বসানো হয়েছে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা। পোশাকি পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোশাকেও পুলিশ সার্বক্ষণিক মোতায়েন থাকবে বলে জানিয়েছেন এসএমপির অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (মিডিয়া) মো. জেদান আল মুসা।


সিলেট/আব্দুল্লাহ আল নোমান/বকুল

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন