ঢাকা, রবিবার, ২১ আষাঢ় ১৪২৭, ০৫ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

‘গাড়িতে নয়, হেঁটে চলাও কষ্টসাধ্য’

সৌরভ পাটোয়ারী : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১২-০৬ ১২:৩৮:৩৪ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১২-০৬ ১২:৪১:০৭ পিএম

সড়কটি এতই খারাপ যে যানবাহনে নয়, হেঁটেও চলাচল করা কষ্টসাধ্য। সড়কের বেশির ভাগ অংশের কার্পেটিং উঠে গেছে। এটি চলাচলের অনুপযোগী হওয়ায় সিএনজি চালিত অটোরিকশা চালকদেরও অতিরিক্ত ভাড়া দিতে হয়। কথাগুলো আক্ষেপ নিয়ে বলছিলেন ফেনী শহরের ব্যবসায়ী এমরান হোসেন। তিনি নিত্য প্রয়োজনে সোনাইমুড়ী সড়কে নিয়মিত যাতায়াত করেন।

ফেনীর পশ্চিমাঞ্চলের বাসিন্দাসহ নোয়াখালী জেলার লোকজন প্রতিদিন এ সড়কে চলাচল করেন। তাদের দৈনন্দিন জীবনের অন্যতম ভোগান্তির নাম ফেনী-সোনাইমুড়ী সড়ক। এর বেহাল দশার কারণে যান চলাচলে অনুপযোগী হওয়ায় চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে ওই সড়কে চলাচলকারী যাত্রী ও চালকদের।

এ অবস্থায় যাত্রীদের গুনতে হচ্ছে অতিরিক্ত ভাড়া। চলাচলকারীদের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার ও মেরামত না হওয়ায় এ সড়ক দিয়ে যানবাহন চলছে ঝুঁকি নিয়ে। ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনাও।

গন্তব্যে পৌঁছাতে বেশি সময় লাগার পাশাপাশি সিএনজি চালিত আটোরিকশা চালককে অতিরিক্ত ভাড়া দিতে হচ্ছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, ফেনীর পশ্চিমাঞ্চলের লাখ লাখ মানুষের যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম ফেনী-সোনাইমুড়ী সড়কটি কার্পেটিং উঠে খানাখন্দে ভরে গেছে। ফলে এলাকাবাসী জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে। রাস্তার খানা-খন্দের কারণে দুর্ঘটনা ঘটছে অহরহ।

ফেনীর তেমুহানী থেকে বিরলী বাজার, রাজাপুর, সিন্দুরপুর, অলাতলী, দরবেশেরহাট, গাজিরহাট ও কানকিরহাট পর্যন্ত জনসাধারণের একমাত্র চলাচলের মাধ্যম এই সড়কটি। ৩ টি জেলার সড়ক ও জনপদ বিভাগের তত্ত্বাবধানে এটি বিকল্প বিশ্বরোড হিসেবে অনুমোদিত। ফেনীর তেমুহানী থেকে সড়কটি কর্তৃপক্ষের উদাসীনতায় বর্তমানে চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। বেহালদশা দেখলে মনে হয় এর কোনো অভিভাবক নেই।

এদিকে সড়কটির বেহাল অবস্থার ওপর একাধিক প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ক্ষতিগ্রস্ত কিছু অংশে লোক দেখানো সামান্য মেরামতের কাজ করে বন্ধ করে দেয়। এরপর একবছর যেতে না যেতেই সড়কটির অবস্থা ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে।

সড়ক ও জনপদ সূত্রে জানা গেছে, মহাসড়কের উন্নতি এবং প্রশস্তকরণের প্রস্তাবনা মন্ত্রণালয়ে অনুমোদনের জন্য প্রেরণ করা হয়েছে।

সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালক সাইফুল ইসলাম জানান, সড়কটি যান চলাচলে অনুপযোগী হওয়ায় প্রায় মাঝ পথে গাড়ি নষ্ট হয়ে দাঁড়িয়ে যায় এবং যন্ত্রাংশ বিকল হয়ে পড়ে। এ সময় গাড়ি গ্যারেজে রেখে দু’একদিন বেকার থাকতে হয়। এভাবে সংসার চালাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে।’

ফেনী পশ্চিমাঞ্চল কমিউনিটির সভাপতি আলহাজ আবুল কাসেম জানান, ফেনীর তেমুহনী থেকে সদর উপজেলা ও তার পাশ্ববর্তী উপজেলার বেশকটি ইউনিয়নের জনসাধারণ, শিক্ষার্থী, ব্যবসায়ী, চাকরিজীবীদের একমাত্র চলাচলের মাধ্যম সড়কটি বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। এতে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে চলাচলকারীদের। অতি দ্রুত সময়ের মধ্যে সড়কটি চলাচল উপযোগী করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট দাবি জানান।

সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর ফেনীর নির্বাহী প্রকৌশলী সৈয়দ হালিমুর রহমান বলেন, ‘সড়কটি প্রশস্তকরণসহ মজবুতের জন্য বৃহৎ পরিসরে সংস্কার করতে কুমিল্লা জোনাল অফিসের নিকট লিখিতভাবে জানানো হয়েছে। তবে, সড়কটি অতি গুরুত্বপূর্ণ হওয়ায় দ্রুততম সময়ের মধ্যে দরপত্র আহ্বান করে যান চলাচলে উপযোগী করা হবে।’

 

ফেনী/মাহি

       
 

আরো খবর জানতে ক্লিক করুন : ফেনী, চট্টগ্রাম বিভাগ