ঢাকা, সোমবার, ৪ ফাল্গুন ১৪২৬, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

রায়কে ‘প্রাথমিক বিজয়’ বলছেন রোহিঙ্গারা

কক্সবাজার প্রতিনিধি : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০১-২৩ ১০:৫০:০৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০১-২৪ ৮:২৪:৫৪ এএম

মিয়ানমারে ‘রোহিঙ্গাদের’ ওপর নির্যাতন বন্ধ এবং তাদের সুরক্ষায় মিয়ানমারকে সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপ নেয়ার আদেশ দিয়েছেন আন্তর্জাতিক বিচার আদালত (আইসিজে)। এ বিষয়ে চার মাসের মধ্যে দেশটিকে অগ্রগতি জানাতে বলা হয়েছে।

আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে রোহিঙ্গাদের ওপর চালানো ‘গণহত্যার’ অভিযোগ প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হওয়া এবং তাদের ‘রোহিঙ্গা’ হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার আদেশকে ‘প্রাথমিক বিজয়’ হিসেবে দেখছেন কক্সবাজারে আশ্রয় নেয়া মিয়ানমারের নাগরিকেরা।

কক্সবাজারের উখিয়া কুতুপালং ক্যাম্প। যেখানে বসবাস করছেন হাজার হাজার রোহিঙ্গা। এ সকল রোহিঙ্গার কাছে আজকের দিনটি ছিল অন্যরকম। কারণ গাম্বিয়ার করা মামলায় আন্তর্জাতিক আদালত অন্তর্বর্তী আদেশ দিয়েছেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, বিকেল ঠিক ৩টা। রোহিঙ্গারা দোকানপাট বন্ধ করে ছুটছেন চায়ের দোকানে। কারণ টিভিতে সরাসরি দেখা যাবে রায় ঘোষণা। নেদারল্যান্ডসের হেগের আন্তর্জাতিক আদালতে রায় পড়া শুরু হলে রোহিঙ্গারা তা বোঝার চেষ্টা করেন। রায় শেষ হওয়ার পর শুকরিয়া জ্ঞাপন করেন বাংলাদেশ, গাম্বিয়া ও বিশ্ববাসীর কাছে। বলেন, এটা তাদের ‘প্রথম বিজয়’।

কুতুপালং লম্বাশিয়া ক্যাম্পের রোহিঙ্গা আবু ফজল বলেন, মিয়ানমার যে গণহত্যা চালিয়েছে সেটি আন্তর্জাতিক আদালতে আজ প্রমাণিত হয়েছে, তাই তারা খুব খুশি।

আরেক রোহিঙ্গা সিরাজ বলেন, ‘‘আশা করি আমরা দেশে ফিরতে পারব।’’

আন্তর্জাতিক আদালতের আদেশে খুশি হলেও উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেনি রোহিঙ্গারা। এখন তাদের দাবি, মিয়ানমারকে বিশ্ববাসী আরো বেশি চাপ প্রয়োগ করবে, যাতে দেশটি তাদের পূর্ণ নাগরিক মর্যাদা দিয়ে ফেরত নেবে।

আরকান রোহিঙ্গা সোসাইটি ফর পিস অ্যান্ড হিউম্যান রাইটসের চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম বলেন, তিন বছর ধরে তারা যে জন্য পথ চেয়ে আছেন, সেই রায় আজ পেয়েছেন।


সুজাউদ্দিন রুবেল/বকুল

     
 

আরো খবর জানতে ক্লিক করুন : কক্সবাজার, চট্টগ্রাম বিভাগ
ট্যাগ :