ঢাকা, শনিবার, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৬ জুন ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

ভবঘুরে বৃদ্ধার ঠাঁই হলো আশ্রয়নকেন্দ্রে

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৩-২৮ ১১:৫৩:১০ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৩-২৮ ১১:৫৩:১০ পিএম

টাঙ্গাইলের সখীপুর পৌর শহরে সারা দিন ঘুরে বেড়াতেন ষাটোর্ধ্ব বয়সের এক নারী। মানসিক ভারসাম্যহীন ওই নারীর ছিল না নির্দিষ্ট আশ্রয়। অন্যের দেওয়া খাবার বা রাস্তার পাশে পাওয়া উচ্ছিষ্টে পেট চলত তার।

অজ্ঞাত এই বৃদ্ধাকে এখন থেকে আর কাটাতে হবে না ভবঘুরে জীবন। স্থানীয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসমাউল হুসনা লিজার মানবিকতায় সেই বৃদ্ধার ঠাঁই হয়েছে সরকারি আশ্রয়নকেন্দ্রে।

শনিবার (২৮ মার্চ) বিকেলে ওই বৃদ্ধাকে গাজীপুরের পূবাইলে সরকারি আশ্রয়ন (ভবঘুরে) কেন্দ্রে পাঠান ইউএনও। সেখানে সরকারি ব্যবস্থাপনায় বিনামূল্যে থাকা-খাওয়ার পাশাপাশি নিয়মিত চিকিৎসাসেবাও মিলবে।

স্থানীয়রা জানান, অনেক দিন ধরেই সখীপুর পৌর এলাকার বিভিন্ন স্থানে মানসিক ভারসাম্যহীন ভবঘুরে এক বৃদ্ধাকে দেখা যেত। বস্তা আর পুটলি নিয়ে তিনি ঘুরে বেড়াতেন। কেউ কখনো খাবার দিলে খেতেন, নয়তো রাস্তার পাশে ফেলে দেওয়া খাবার কুড়িয়ে খেতেন। নিজের পরিচয় বলতে পারতেন না। কেউ কখনো তার খোঁজও নিতো না। রাতে রাস্তার পাশের কোনো দোকান বা মার্কেটের সামনে ঘুমাতেন। আজ দুপুরে ইউএনও তাকে রাস্তার পাশে শুয়ে থাকতে দেখে এগিয়ে যান। পরে তিনি তাকে খাবার কিনে দেন। বিকেলে তাকে গাজীপুরের আশ্রয়ন কেন্দ্রে পাঠান।

সখীপুরের ইউএনও আসমাউল হুসনা লিজার বলেন, আজ দুপুরে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ত্রাণ বিতরণ করে কর্মস্থলে ফিরছিলাম। তখন পৌর এলাকার সৌখিন মোড়ে এক বৃদ্ধাকে রাস্তার পাশে শুয়ে থাকতে দেখি। স্থানীয়দের কাছে খোঁজ নিয়ে জানতে পারি, তিনি মানসিক ভারস্যামহীন। অনেক দিন ধরেই পৌর এলাকায় তাকে ঘোরাঘুরি করতে দেখা যায়। বৃদ্ধার কাছে তার পরিচয় জানতে চাইলে তিনি তা বলতে পারেননি। যেহেতু তার পরিবার বা আশ্রয় নেই, তাই তাকে গাজীপুরের পূবাইলের সরকারি আশ্রয়নকেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।

যশোরের মণিরামপুরে মাস্ক না পরায় তিন বৃদ্ধকে কান ধরে ওঠবস করানোয় ওই উপজেলার এসিল্যান্ড সাইয়েমা হাসান যখন নিন্দিত হচ্ছেন, তখন দেশের আরেক প্রান্তে ইউএনও আসমাউল হুসনার মানবিকতা বোধের প্রশংসা করছেন স্থায়ীনরা।


টাঙ্গাইল/সিফাত/রফিক

       
 

আরো খবর জানতে ক্লিক করুন : টাঙ্গাইল, ঢাকা বিভাগ