ঢাকা, সোমবার, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০১ জুন ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

যশোরে করোনার প্রভাবে সবজির দামে ধস 

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৪-০৩ ৬:০৪:১৫ এএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৪-০৩ ৬:০৪:৪৬ এএম

দেশের অন্যতম বৃহৎ সবজির বাজার যশোরের সাতমাইল হাট। সপ্তাহে রোববার ও বৃহস্পতিবার এখানে হাট বসে। ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানের ব্যবসায়ীরা এখান থেকে ট্রাকে করে সবজি নিয়ে যায়। কিন্তু করোনাভাইরাসের প্রভাব পড়েছে এখানেও। বৃহস্পতিবার পাইকার সংকটে দাম পায়নি কৃষকরা। এতে পানির দরে সবজি বিক্রি করেছেন তারা।

যশোরের সদর উপজেলার নাটুয়াপাড়া গ্রামের আলী হোসেন জানান, এবার ১৪ কাটা জমিতে পটলের আবাদ করেছেন। বৃহস্পতিবার হাটে পটল বিক্রি করেছেন ২৮ টাকা কেজিতে।

চুড়ামনকাটির বিজয়নগরের কৃষক আহাদ বলেন, মূলা ১৮ টাকা কেজিতে বিক্রি করেছেন। ৩৫ টাকা বিক্রি হলে তাদের লোকসান হতো না। কিন্তু পাইকাররা না আসায় স্থানীয় ব্যাপারিরা দাম দিতে চাইছে না।

বড় হৈবৎপুর গ্রামের চাষি মোহর আলী বলেন, পটল ২৮ টাকা, উচ্ছে ৩০ টাকা কেজিতে বিক্রি করে লোকসান দিতে হয়েছে।

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার ব্যাপারি আনোয়ার হোসেন জানান, গত রোববার পটল ৩২ টাকা কেজিতে কিনে ঢাকার কেরানীগঞ্জে ২৫ টাকা কেজিতে বিক্রি করতে হয়। বড় পাইকাররা দাম দিচ্ছে না। স্থানীয় ব্যাপারি আবদুর রহমান বলেন, আগে ঢাকায় যেতে ট্রাকভাড়া লাগতো ১৩-১৪ হাজার টাকা কিন্তু এখন ভাড়া নিচ্ছে ১৮ হাজার টাকা। এতে মালের দাম বেশি পড়লেও তারা ঢাকায় সবজি নিয়ে দাম পাচ্ছেন না।

সারা বছর যশোর জেলায় সবজির আবাদ হয়ে থাকে। বছরে ৩২ হাজার হেক্টর জমিতে চাষিরা বিভিন্ন ধরণের সবজির আবাদ করেন। যা থেকে উৎপাদন হয় প্রায় ৮ লাখ মেট্রিক টন। এসব সবজি জেলার চাহিদা মিটিয়ে ঢাকাসহ সারা দেশে পাঠানো হয়।

এ বিষয়ে যশোর আঞ্চলিক কৃষি অফিসের উপপরিচালক ড.  আক্তারুজ্জামান বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে সবজির দাম কম পাচ্ছে চাষিরা।


রিটন/বকুল/নাসিম

     
 

আরো খবর জানতে ক্লিক করুন : যশোর, খুলনা বিভাগ