ঢাকা, শুক্রবার, ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৫ জুন ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্ত গার্মেন্টস কর্মীকে নিয়ে আতঙ্ক

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৪-০৯ ১২:২৩:৩১ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৪-০৯ ১২:২৩:৩১ পিএম

চট্টগ্রামে নতুন করে যে তিনজনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে তাদের মধ্যে একজন গার্মেন্টস কর্মী।

তিনি গত ২৬ মার্চ পর্যন্ত নগরীর আকবর শাহ থানার আওতাধীন ভার্টেক্স নামক একটি গার্মেন্টস কারখানায় কাজ করেছেন।

আর ওই গার্মেন্টসে তার সহকর্মীর সংখ্যা প্রায় দেড় হাজার। তবে এই শ্রমিক গার্মেন্টস বন্ধ হওয়ার পর করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন নাকি পরে আক্রান্ত এ ব্যাপারে নিশ্চিত করে বলতে পারছেন না কর্তৃপক্ষ।

বুধবার (৮ এপ্রিল) রাতে তার দেহে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হওয়ার তথ্য নিশ্চিত করে চট্টগ্রামের স্বাস্থ্য বিভাগ।

করোনা আক্রান্ত গার্মেন্টস কর্মীকে নিয়ে আতঙ্কের বিষয়টি শিকার করে নগরীর আকবর শাহ থাকার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, করোনা শনাক্ত হওয়ার পর পরই আকবর শাহ থানা এলাকার ওই কর্মীর বাড়ি পুলিশ লকডাউন করে দিয়েছে। এলাকায় পুলিশের সতর্ককার পাশাপাশি সাধারণ মানুষকেও এ ব্যাপারে সতর্ক করা হয়েছে।

ওসি আরো জানান, করোনা শনাক্ত হওয়ার পর ইতোপূর্বে ওই গার্মেন্টস কর্মীর সঙ্গে যারা চাকুরি করেছেন সেই সহকর্মীদের স্বেচ্ছায় হোম কোয়ারেন্টাইনে চলে যেতে বলা হয়েছে। কারা এই গার্মেন্টস কর্মীর সহকর্মী ছিলেন তা পুরোপুরি চিহ্নিত করা সম্ভব না হলেও পুলিশের এক জরুরি বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ওই কর্মীর সংস্পর্শে আসা সবাইকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে অনুরোধ করে পুলিশ। এ ব্যাপারে কারও কাছে কোন তথ্য থাকলে আকবরশাহ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) ০১৭৬৯৬৯০০৬৬ নম্বরে ফোন করে তথ্য দেয়ার অনুরোধ জানানো হয়।

এদিকে, চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি জানান, বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত চট্টগ্রামে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা সর্বমোট পাঁচজন। এদের মধ্যে গত ৩ এপ্রিল প্রথম করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয় চট্টগ্রামে। এর দুই দিন পর একই পরিবারের আরো একজনের করোনা শনাক্ত হন।

সর্বশেষ, বুধবার রাতে নতুন করে যোগ হয় তিনজন। এদের একজন ব্যাংক কর্মকর্তা, একজন গার্মেন্টস কর্মী এবং অপর একজন নারী। ব্যাংক কর্মকর্তা ঢাকার নারায়ণগঞ্জে একটি বেসরকারি ব্যাংকে চাকুরি করেন। তিনি কয়েকদিন পূর্বে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে নিজ বাড়িতে ফিরে আসার পর তার দেহে করোনার লক্ষণ দেখা দেয়। পরীক্ষার পর তার দেহে করোনা শনাক্ত হয়।

অপরদিনে, নগরীর হালিশহর এলাকায় এক নারীকে করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে। তবে তিনি কিভাবে করোনায় আক্রান্ত হলেন এ ব্যাপারে নিশ্চিত কোন তথ্য পাওয়া যায়নি। নতুন আক্রান্ত তিনজনের মধ্যে পারস্পরিক কোন সম্পর্ক নেই।

 

চট্টগ্রাম/রেজাউল/বুলাকী