RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     শুক্রবার   ২৭ নভেম্বর ২০২০ ||  অগ্রাহায়ণ ১৩ ১৪২৭ ||  ১০ রবিউস সানি ১৪৪২

আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্তদের ঘর করে দিচ্ছে সেনাবাহিনী

ফরাজী মো. ইমরান || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:৩৩, ২৩ মে ২০২০   আপডেট: ১০:৩৯, ২৫ আগস্ট ২০২০
আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্তদের ঘর করে দিচ্ছে সেনাবাহিনী

মোহাম্মদ আল-আমিন। বয়স চল্লিশের কাছাকাছি। তিনি পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার টিয়াখালী ইউনিয়নের নাচনাপাড়া গ্রামের আবদুল হক পাহলানের ছেলে। একটি বেসরকারি মাদ্রাসার শিক্ষক তিনি। দুই মেয়ে, বাবা, মা ও স্ত্রী নিয়ে নিজ গৃহ কাঁচা বসত ভিটায় তার বসবাস। শিক্ষক হিসেবে যে টাকা আয় করতেন, তা দিয়ে কোন রকম চলছিলো তার সংসার। বুধবার ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাব শুরু হলে সন্ধ্যায় পরিবার নিয়ে আশ্রয় নেন তার নিজ কর্মস্থল মাদ্রাসায়। রাতে অস্বাভাবিক বাতাসে বিধ্বস্ত হয়ে যায় তার পুরো ঘর। একমাত্র আশ্রয়স্থল বিধ্বস্ত হওয়ায় ভেঙে পড়েন তিনি।  ঘর তোলার সামর্থ্য না থাকায় কী করবেন, ভেবে পাচ্ছিলেন না। পরে ওই সড়ক দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে বিষয়টি নজরে আসে পটুয়াখালী শেখ হাসিনা সেনানিবাসের সদস্যদের।

আজ শনিবার দুপুরে সেনা বাহিনীর সদস্যরা নিজেরা কাজ করে তার ঘরটি তুলে দেন। শুধু আল-আমিনের ঘরই নয়, ঘূর্ণিঝড় অম্পানে ক্ষতিগ্রস্থদের খাদ্য সহায়তার পাশাপাশি অসহায় অনেক পরিবারকে গৃহ র্নিমাণ করে দিচ্ছে পটুয়াখালী শেখ হাসিনা সেনানিবাসের সপ্তম পদাদিক ডিভিশন। পটুয়াখালী জেলার বিভিন্ন এলাকায় ক্ষতিগ্রস্থ তিন হাজার মানুষকে খাদ্য সহায়তার পাশাপাশি নিজস্ব অর্থায়নে এসব গৃহ নির্মাণ করে দিচ্ছে তারা।

ক্ষতিগ্রস্থ আল-আমিন জানান, এভাবে সেনাবাহিনীর ভাইরা ঘর তুলে দিবে, তা ভাবতে পারিনি। তারা আমাকে সাহায্য করেছে। আমি তাদের জন্য দোয়া করছি।

পটুয়াখালী শেখ হাসিনা সেনানিবাসের ৪২ আর্টিলারী বিগ্রেডের ক্যাপ্টেন ওয়াসিফ ইবনে সরোয়ার জানান, ঝড়ের পর তৃণমূল পর্যায়ে ক্ষতিগ্রস্থদের তথ্য সংগ্রহের পাশাপাশি ত্রাণ সহায়তা নিয়ে সাধারণ মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে পটুয়াখালী শেখ হাসিনা সেনানিবাসের সপ্তম পদাদিক ডিভিশন।


কলাপাড়া/সাজেদ

রাইজিংবিডি.কম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়