ঢাকা, সোমবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ২৫ মে ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:
করোনা উপসর্গ নিয়ে সাবেক এমপি হাজী মকবুলের মৃত্যু        ‘করোনার শুরু থেকেই নিজ এলাকায় ত্রাণ দিচ্ছেন প্রায় সব এমপি’        ‘জোয়ারের পানিতে হাবুডুবু খাচ্ছি, কেউ খবর নেচ্ছে না’        প্রকাশ্যে এসেই পারমাণবিক যুদ্ধ সক্ষমতা বাড়নোর নির্দেশ উনের        ‘জীবন-জীবিকার স্বার্থে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড চালু করতে হবে’        বোরোর বাম্পার ফলন আশীর্বাদ হয়ে এসেছে : প্রধানমন্ত্রী        চিকিৎসা সক্ষমতা অনেক গুণ বৃদ্ধি করা হয়েছে : প্রধানমন্ত্রী        ঘরে বসে ঈদের আনন্দ উপভোগ করুন : প্রধানমন্ত্রী        ‘প্রস্তুতি থাকায় জানমালের ব্যাপক ক্ষতি এড়ানো সম্ভব হয়েছে’        যে তিন উপায় করোনা থেকে সুরক্ষিত রাখে       

বরগুনায় ইউপি চেয়ারম্যানসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

বরগুনা প্রতিনিধি : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৫-২৪ ৪:০৭:৩৩ এএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৫-২৪ ৪:০৭:৩৩ এএম

বরগুনার নলটোনা ইউনিয়নে মানিক (৩৬) নামের একজনকে কুপিয়ে যখমের ঘটনায় সদর উপজেলার নলটোনা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবীরসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে।

শনিবার (২৩ মে) ওই ঘটনায় আহত আবদুল্লাহ বাদি হয়ে বরগুনা সদর থানায় মামলা দায়ের করেন।

বরগুনা সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবির হোসেন শনিবার রাতে মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলার এজাহারের আসামিরা হলেন- মুছা শহীদ, হুমায়ুন কবীর (ইউপি চেয়ারম্যান) শহীদ ওরফে কালা শহীদ, মিজান, সোহাগ, সোহেল, জামাল চৌধূরি, ইলিয়াস রনি, তানজিল ও তুষার। এর মধ্যে মিজান ও সোহাগ ও সোহেল চেয়ারম্যান কবীরের ভাইয়ের ছেলে।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, ডিসি বরাবর চেয়ারম্যান গোলাম কবীরের বিরুদ্ধে জেলেদের চাল আত্মসাৎ বিষয়ক লিখিত অভিযোগ দেওয়ার জেরে তার ইন্ধনে ভাইয়ের ছেলে মিজান ও সোহাগের নেতৃত্বে কালা শহীদ ও মুছা শহীদসহ আরো কয়েকজন গর্জবুনিয়া গণকবর এলাকায় মানিকের মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে মারধর শুরু করে। এক পর্যায়ে তারা ধারালো অস্ত্র দিয়ে মানিককে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে যখম করে।

ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম কবীর মুঠোফোনে অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘আমার ভাইয়ের ছেলেরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিল না। ঘটনাটি মূলত মাদক নিয়ে বিরোধে ঘটেছে। রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ এ ঘটনাকে পুঁজি করে আমার বিরুদ্ধে বাদিকে দিয়ে মিথ্যে অভিযোগ দায়ের করেছে।’

সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবির হোসেন মোহাম্মদ বলেন, ‘আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান চলছে। তদন্ত করে পরবর্তি আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

 

রুদ্র রুহান/সনি

     
 

আরো খবর জানতে ক্লিক করুন : বরগুনা, বরিশাল বিভাগ