ঢাকা     রোববার   ০৯ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ২৫ ১৪২৭ ||  ১৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

লক্ষ্মীপুর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্পাদক ইমতিয়াজ গ্রেপ্তার

|| রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:০৭, ৫ জুলাই ২০২০  
লক্ষ্মীপুর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্পাদক ইমতিয়াজ গ্রেপ্তার

লক্ষ্মীপুরে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে চাচা-চাচীকে মারধর করে টাকা, পাসপোর্ট, মোবাইল ফোনসেট লুটের মামলায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মাহবুব ইমতিয়াজকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

রোববার (৫ জুলাই) বিকেলে সদর উপজেলার নন্দনপুর এলাকা থেকে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। একই মামলায় সম্প্রতি তার ভাই জোবায়েরকেও গ্রেপ্তার করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম আজিজুর রহমান মিয়া।

মাহবুব ইমতিয়াজ জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক। একই মামলায় জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি আশরাফুল আলম ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ছগিরসহ আরও ১৪ জনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, মাহবুব ইমতিয়াজদের সঙ্গে তার চাচা জামাল উদ্দিনদের জমি নিয়ে বিরোধ রয়েছে। তারা লক্ষ্মীপুর পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের বাঞ্চানগর এলাকার বাসিন্দা। এর জের ধরে ২০১৯ সালের ৪ অক্টোবর ইমতিয়াজ ও তার পরিবারের লোকজন জামাল ও তার স্ত্রী শিমু আক্তারকে পিটিয়ে মাথায় জখম করে। এ ঘটনায় জামালের মা সাদিয়া বেগম বাদী হয়ে ইমতিয়াজসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে সদর থানায় মামলা দায়ের করেন।

ওই মামলায় বাদীকে জোরপূর্বক আদালতে নিয়ে ঘটনার আপোষ হয়েছে বলে জামিন নেয় আসামিরা। ওইসময় মামলার প্রত্যাহারের জন্য চাপ দিলে বাদী তা করেননি। পরবর্তীতে ২৬ অক্টোবর ফের ইমতিয়াজ ও মামলার আসামিরা জামালের বাড়িতে হামলা চালায়। এসময় বাধা দিতে গেলে জামাল ও স্ত্রী-ছেলেকে মারধর করা হয়। এক পর্যায়ে হামলাকারীরা টাকা, পাসপোর্ট, ভিসা ও মোবাইল ফোন সেট লুটে নেন।

নতুন অভিযোগের ভিত্তিতে ২০২০ সালের ১৬ মার্চ স্বেচ্ছাবেকলীগ নেতা মাহবুব ইমতিয়াজসহ ১০ জনের নাম উল্লেখ ও অচেনা ৬ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়। ভুক্তভোগী শিমু আক্তার মামলার বাদী।

ওসি একেএম আজিজুর রহমান মিয়া জানান, অভিযান চালিয়ে মারধর ও লুটের মামলার আসামি ইমতিয়াজকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বিকেলেই তাকে আদালতে পাঠানো হয়। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

 

ফরহাদ/বুলাকী

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়