ঢাকা     শনিবার   ১৫ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ৩১ ১৪২৭ ||  ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

করোনার ভয়ে রাস্তায় মরদেহ ফেলে গেলেন অটোচালক

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৪:২৫, ১০ জুলাই ২০২০  
করোনার ভয়ে রাস্তায় মরদেহ ফেলে গেলেন অটোচালক

হাসপাতালে নেওয়ার পথে করোনার উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু হওয়ায় এক বৃদ্ধের মরদেহ রাস্তায় ফেলে যান অটোরিকশাচালক।  দীর্ঘসময় স্বামীর লাশ নিয়ে রাস্তার পাশেই চলে বৃদ্ধ স্ত্রীর আহাজারি। নির্বাক চোখে তাকিয়ে দেখলেও সেই লাশ সৎকারে এগিয়ে আসেনি কেউ।  পরে ইসলামি ফাউন্ডেশন ও পুলিশের  সহযোগিতায় লাশ সৎকারের ব্যবস্থা করা হয়।

শুক্রবার (১০ জুলাই) সকালে টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার পৌর এলাকার উত্তর চামুরিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, ওই এলাকার অমল শীল (৬৫) প্রায় ১০ দিন ধরে ঠান্ডা, জ্বরে  ভুগছিলেন। অসুস্থ হওয়ার পর তাকে হাসপাতালে ভর্তিও করা হয়। সম্প্রতি হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরে আসলে আজ সকালে আবারও অবস্থা খারাপ দেখে তার স্ত্রী পবন রানী শীল স্বামীকে নিয়ে অটোরিকশা যোগে হাসপাতালে রওনা দেন।  পথে অমল শীল মারা যান।  করোনাভাইরাসের ভয়ে রাস্তার পাশে লাশ ফেলে চলে যায় তাকে বহনকারী অটোরিকশাচালক।  রাস্তায় স্বামীর মরদেহ নিয়ে বসে থাকেন বৃদ্ধা পবন রানী।

স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর এনামুল হক বলেন, অটোরিকশাচালক তাদের নামিয়ে দিয়ে চলে যাওয়ার পর কেউ সাহায্য করেনি।  করোনার ভয়ে কেউ লাশ সৎকারে এগিয়েও আসেনি। পরে পুলিশের সহযোগিতায় লাশ সৎকারের ব্যবস্থা করা হয়।

কালিহাতী থানার ওসি হাসান আল মামুন বলেন, করোনার উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু হওয়ায় লাশ সৎকারে তার স্বজনরা কেউ এগিয়ে আসেনি।  ইসলামি ফাউন্ডেশন ও স্থানীয়দের সহযোগিতায় লাশ দাহ করা হয়।

ইসলামী ফাউন্ডেশনের কালিহাতী উপজেলা কমিটির নেতা মাওলানা মোহাম্মদ আবু হানিফ বলেন, স্থানীয়দের সহযোগিতায় শ্মশানঘাটে তার লাশ দাহ করা হয়েছে।

কালিহাতী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সাইদুর রহমান বলেন, অমল শীলের করোনা হয়েছিল কি না—পরীক্ষা করার জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।


টাঙ্গাইল/সিফাত/সাইফ

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়