RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||  আশ্বিন ১৫ ১৪২৭ ||  ১২ সফর ১৪৪২

গোপালগঞ্জে নদীর পানি বৃদ্ধিতে ভাঙন শুরু, আতঙ্কে বাসিন্দারা

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:৩০, ৫ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১০:৩৯, ২৫ আগস্ট ২০২০
গোপালগঞ্জে নদীর পানি বৃদ্ধিতে ভাঙন শুরু, আতঙ্কে বাসিন্দারা

গোপালগঞ্জে মধুমতি, কুমার নদ, শৈলদহ, বাঘিয়ারকুল, ঘাঘর নদীর পানি বেড়ে প্রতিদিনই নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। তবে এখনও বেশিরভাগ নদীর পানি বিপৎসীমার নিচে থাকলেও ভাঙন অব‌্যাহত রয়েছে, আতঙ্কে আছেন বাসিন্দারা। 

গোপালগঞ্জ সদর, কাশিয়ানী, মুকসুদপুর ও কোটালীপাড়া উপজেলার অন্তত ২৫টি গ্রামের ২২ হাজার বাসিন্দা পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। বন্যা কবলিত পাঁচ শতাধিক পরিবার উঁচু এলাকার বিভিন্ন স্কুলে ও রাস্তার পাশে কুঁড়েঘর বানিয়ে সেখানে আশ্রয় নিয়েছে। এসব এলাকার ছোট বড় সহস্রাধিক পুকুর বন্যার পানিতে ভেসে গেছে।

এদিকে, বন্যার পানি বৃদ্ধির কারণে মধুমতি নদী ও মধুমিত বিলরুট চ্যানেলের বিভিন্ন স্থানে ভাঙন দেখা দিয়েছে। গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার মধুমতি নদীর মানিকদাহ, জালালাবাদ এলাকায় ভাঙন শুরু হয়েছে। এতে আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে ওই সব এলাকার বাসিন্দারা।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী বিশ্বজিৎ কুমার বৈদ্য জানিয়েছেন, সকাল ৯টায় মধুমতি নদী পয়েন্টে বিপৎসীমার ৩৮ সেন্টিমিটার এবং মধুমতি বিলরুট চ্যানেলে বিপৎসীমার ৫ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে।

জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা জানান, জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ইতোমধ্যে দুর্গতদের সাহায্যের জন্য ৩০০ মেট্রিক টন চাল এবং শিশু, গো-খাদ্য ও শুকনা খাবারের জন্য ৬ লাখ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। 

    গোপালগঞ্জ/বাদল সাহা/সাজেদ 

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়