ঢাকা     শুক্রবার   ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||  আশ্বিন ১০ ১৪২৭ ||  ০৭ সফর ১৪৪২

কালিহাতীতে শোক দিবসের অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ নেতা লাঞ্ছিত 

নিজস্ব প্রতিবেদক, টাঙ্গাইল  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:২৫, ১৫ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১০:৩৯, ২৫ আগস্ট ২০২০
কালিহাতীতে শোক দিবসের অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ নেতা লাঞ্ছিত 

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে জাতীয় শোক দিবসে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে গিয়ে উপজেলা চেয়ারম‌্যানের হাতে স্থানীয় এক আওয়ামী লীগ নেতা লাঞ্ছিত করেছেন।

ওয়ারেছুল হাসান সিদ্দিকী নামের উপজেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পদককে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ করেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং ভুক্তভোগী ওই নেতা।

শনিবার সকালে উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে তাকে লাঞ্ছিত করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনসার আলী বি.কম। কৃষিবিদ ওয়ারেছুল হাসান সিদ্দিকী উপজেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক।

জানা যায়, আজ সকালে কালিহাতী উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে আসেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনগুলোর নেতাকর্মীরা। এসময় ফুল দিতে গেলে ওয়ারেছুল হাসান সিদ্দিকীকে হঠাৎ করেই ধাক্কা দিয়ে বের করে দেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনসার আলী। স্থানীয় এমপি হাছান ইমাম খান সোহেল হাজারী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সামনেই এ ঘটনা ঘটে। উপজেলা চেয়ারম্যানের হাতে আওয়ামী লীগ নেতা লাঞ্ছিত হওয়ায় সাধারণ নেতাকর্মীদের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

ওয়ারেছুল হাসান সিদ্দিকী সাংবাদিকদের বলেন, ‘গত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আমি নৌকার প্রার্থীর পক্ষে কাজ করি। সেই নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর বিপক্ষে গিয়ে আনারস প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করেন আনসার আলী বিকম। পরে তাকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়। এই ক্ষোভে উপজেলা চেয়ারম্যান উদ্দেশ্য প্রণোদিত ও পরিকল্পিতভাবে আজকের শোকের দিনে আমাকে লাঞ্ছিত করেন। শ্রদ্ধা নিবেদনের সময় তিনি আমাকে বলেন- “তুই এখানে আসছিস কেন?” 

ঘটনাস্থলে উপস্থিত উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন মোল্লা বলেন, ‘জাতীয় শোক দিবসে যে কোন নাগরিক শ্রদ্ধা নিবেদন করতে পারেন। সেখানে শ্রদ্ধা নিবেদন করার সময় একজন আওয়ামী লীগ নেতাকে গলা ধাক্কা দেওয়া অত্যন্ত ন্যাক্কারজনক ঘটনা। এটা মেনে নেওয়া যায় না।’ 

ঘটনার তাৎক্ষণিক তীব্র প্রতিবাদ করে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোজহারুল ইসলাম তালুকদার বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর শাহাদত বার্ষিকীতে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে এসে আওয়ামী লীগ নেতা লাঞ্ছিত হওয়া অত্যন্ত দুঃখজনক। যেখানে উপজেলা চেয়ারম্যান নিজেই দল থেকে বহিষ্কৃত।’

এ বিষয়ে মন্তব্যের জন্য উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনসার আলী বি.কমকে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

স্থানীয় এমপি হাছান ইমাম খান সোহেল হাজারির মুঠোফোনে একাধিকবার চেষ্টার পর তার ব্যক্তিগত সহকারী আজাদ হীরা রিসিভ করে বলেন, ‘এমপি মহোদয় শোক দিবসের কর্মসূচিতে আছেন। ফ্রি হলে কথা বলবেন।’

শাহরিয়ার সিফাত/সাজেদ 

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়