RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ২৫ অক্টোবর ২০২০ ||  কার্তিক ১০ ১৪২৭ ||  ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

অসুস্থ ছেলেকে নিয়ে দুশ্চিন্তায় দিন কাটছে মায়ের

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৮:৫০, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৪:০২, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০
অসুস্থ ছেলেকে নিয়ে দুশ্চিন্তায় দিন কাটছে মায়ের

বেঁচে থাকার জন্য প্রতি মাসে ৭ থেকে ৮ ব্যাগ রক্ত লাগছে সবুজের।  প্রতিদিন লাগে প্রায় ৫০০ টাকার ওষুধ।  সব মিলিয়ে প্রতি মাসে ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকা খরচ হচ্ছে ওষুধে। 

দুই বছর যাবত বিরল রোগ প্যানসাইটোপেনিয়ায় আক্রান্ত কোটালীপাড়া উপজেলার ঘাঘর কান্দা গ্রামের সবুজ শেখ (২১)। টগবগে এই যুবক এখন মৃত্যুর পথযাত্রী।  তার চিকিৎসার জন্য প্রয়োজন ১৫ লাখ টাকা।

ছেলেকে নিয়ে দুশ্চিন্তায় দিন কাটছে মা রাশিদা বেগমের।  বাবা জামাল শেখ একজন দরিদ্র কৃষক।  দুই ছেলে এক মেয়ে নিয়ে ৫ সদস্যের পরিবারের ভরণপোষণই যেখানে কষ্টের, সেখানে কেমন করে চিকিৎসার টাকা জোগাবেন তারা।  এত টাকা যোগাড় করা সম্ভব না হওয়ায় তার চিকিৎসা চলছে ঢিমেতালে।

আক্ষেপ নিয়ে মা রাশিদা বেগম বলেন, চোখের সামনে ছেলের এই অবস্থা অথচ কিছুই করতে পারছি না।  কে দেবে সবুজের চিকিৎসার এতো টাকা?

নিজেদের শেষ সম্বল এক টুকরো জমি বিক্রি করে দুই লাখ টাকা নিয়ে চিকিৎসার জন্য ছেলেকে নিয়ে ভারতের সিএমসি হাসপাতালে ছুটে যান বাবা।  সেখানকার চিকিৎসকেরা জানান, অতি দ্রুত সবুজের শরীরে বোন ম্যারো ট্রান্সপ্লান্ট করতে হবে। সব মিলিয়ে খরচ হবে প্রায় ২০ লাখ টাকা।  টাকা না থাকায় চিকিৎসা না করিয়েই দেশে ফিরে আসতে হয় তাদের।

এদিকে ক্রমাগত সবুজের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটছে।  সবুজের চিকিৎসার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এক লাখ টাকা দিয়েছিলেন।  তাও শেষে হয়ে যায় ওষুধ ও রক্তের যোগান দিতেই। 

সবুজের এই দুরাবস্থার কথা জানতে পারে তহবিল গঠনে পাশে দাঁড়িয়েছে স্থানীয় সংগঠন ‘জ্ঞানের আলো পাঠাগার’।  ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের বোন ম্যারু ট্রান্সপ্লান্ট বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মাফরুহা আক্তারের কাছে দেখানো হয়েছে সবুজকে।  সবুজের বোন ও ভাইয়ের বোন ম্যারুরও পরীক্ষা হয়েছে।  তাদের বোন ম্যারু সবুজের সাথে পুরোপুরি ম্যাচিং হয়েছে।

গত ১২ সেপ্টেম্বর টেস্ট রিপোর্ট দেখে দুই মাসের মধ্যে সবুজের বোন ম্যারু ট্রান্সপ্লান্ট করতে হবে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। অপারেশন ও অপারেশন পরবর্তী খরচসহ ১৫ লাখ টাকা জোগাড় রাখতে বলেছেন তিনি।  বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের কাছে গিয়েও সংগ্রহ হয়নি প্রয়োজনীয় অর্থ।  ফলে অনিশ্চয়তার মাঝে সবুজের পুরো পরিবার। 

সবুজের মা রাশিদা বেগম বলেন, ছেলের চিকিৎসার খরচ যোগাড় করতে গিয়ে ভিটে মাটি সব বেচে দিয়েছি।  এখন অপারেশেনের জন্য ১৫ লাখ টাকা প্রয়োজন।  অথচ চিকিৎসার টাকা যোগাড় করতে পারছি না।  চোখের সামনে ছেলেটি মরে যাবে এটা আর সহ্য হচ্ছে না।

সবুজের বাবা জামাল শেখ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সমাজের বিত্তবানরা এগিয়ে না এলে ছেলেকে আর বাঁচাতে পারবো না।

জ্ঞানের আলো পাঠাগারের সভাপতি সুশান্ত মন্ডল বলেন, আমাদের সামান্য সহযোগীতায় একটা মানুষের জীবন বাঁচতে পারে। আমরা সবাই যদি একটু একটু সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেই, তাহলেই হয়ে যাবে সবুজের চিকিৎসার টাকা।

সবুজের চিকিৎসায় সাহায্য পাঠাতে পারেন বিকাশ বা ব্যাংক একাউন্টের মাধ্যমে।

বিকাশ নম্বর : ০১৯৮৫৬২৭৬৯০ (পারসোনাল) ও সবুজের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট : সবুজ শেখ, সঞ্চয়ী হিসাব নম্বর : ৬১০ ৪৪০ ১০২ ২৮৭১ সোনালী ব্যাংক, কোটালীপাড়া শাখা।  এছাড়াও সবুজের সাথে কথা বলতে বা দেখা করতে চাইলে যোগাযোগ করতে পারেন সবুজের ০১৯৩৮ ৯৮০ ৬৫০ এই নম্বরে।

বাদল/টিপু

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়