RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     শুক্রবার   ৩০ অক্টোবর ২০২০ ||  কার্তিক ১৫ ১৪২৭ ||  ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

গ্রীষ্মকালীন টমেটো চাষে কৃষক আবেদের ঘুরে দাঁড়ানোর স্বপ্ন

মামুন চৌধুরী || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:০৫, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১০:৩৯, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০
গ্রীষ্মকালীন টমেটো চাষে কৃষক আবেদের ঘুরে দাঁড়ানোর স্বপ্ন

আবদ আলী হবিগঞ্জের বাহুবলের পুজিজুরী পাহাড়ি এলাকার একজন চাষি।ভাল লাভের আশায় এবার তিনি গ্রীষ্মকালীন টমেটো চাষ করেছেন।

প্রায় ২৫ শতক জমিতে গ্রীষ্মকালীন বারী-৪ ও বারী-৮ জাতের টমেটোর চারা রোপণ করেছেন তিনি।এজন‌্য জমি প্রস্তুত, সার, ওষুধ ও পরিচর্যা বাবদ তার ৪০ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। ভাল ফলনের আশায় আবেদ আলী দিনের বেশিরভাগ সময় ব্যয় করেন জমিতে। লাভের আশায় চাষ করা এই টমেটোকে ঘিরে তার এই দিনরাত খাটুনি।

সরেজমিনে পরিদর্শনকালে দেখা যায়, উপজেলার হিলালপুর গ্রামের বাসিন্দা আবেদ আলী টমেটো ক্ষেতে পরিচর্যায় ব্যস্ত। সেসময় টমেটো চাষে পরামর্শ দিতে যাওয়া ডুবাঐ কৃষি ব্লকের উপ-সহকারী কৃষি অফিসারকে দেখে তিনি এগিয়ে আসেন। ক্ষেতে পোকার আক্রমণ রোধে তিনি পরামর্শ চান। কৃষি অফিসারের কাছ থেকে পরামর্শ পেয়ে আনন্দিত এ কৃষক।

এ প্রতিবেদককে কৃষক আবেদ আলী বলেন, ‘প্রায় ২৫ শতক জমিতে গ্রীষ্মকালীন বারী-৪ ও বারী-৮ জাতের টমেটোর চারা রোপণ করেছি। শুরু থেকেই সারাদিন চারাগুলোর যত্ন নেই। আশা রাখি আগামি ২০ দিনের মধ্যে টমেটো বিক্রি শুরু করতে পারবো।

সব মিলিয়ে এখানে প্রায় ৪০ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। এখনকার বাজারদর হিসেবে ফলন অব‌্যহত থাকলে আর কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে এই ফসল বিক্রি করে লাখ টাকা আসবে বলে আমার ধারণা।  কারণ বর্তমান বাজারে টমেটোর প্রতি কেজি ১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।’

উপজেলার উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা প্রণব মজুমদার জানান, গ্রীষ্মকালীন টমেটো চাষ বেশ লাভজনক। কৃষি অফিস থেকে সবসময় কৃষকদের টমেটো চাষে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। কৃষক আবেদ আলী পরিশ্রম করতে পারেন। তাই এ কৃষককে টমেটো চাষে উৎসাহ দিয়েছিলাম। তিনি উৎসাহিত হয়ে বারী-৪ ও বারী ৮ জাতের টমেটো চাষ করেছেন। আশা করি তিনি লাভবান হবেন।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. আবদুল আউয়াল বলেন, গ্রীষ্মকালীন  টমেটো সংগ্রহের প্রায় এক সপ্তাহ পর্যন্ত ভালো থাকে। তাই এটি সারা বছর সবজির চাহিদা পূরণ করতে পারে বলে গ্রীষ্মকালীন উদ্ভাবিত বারি-৪ জাতের টমেটো চাষ করতে পরামর্শ দেন তিনি। সাদা পলিথিনের ছাউনি দিয়ে গ্রীষ্মকালীন টমেটো চাষ খুবই সহজ।

উপজেলা কৃষি অফিস টমেটো চাষিদের প্রয়োজনীয় সব ধরনের সহযোগিতা দিচ্ছে। তাই আমরা কৃষকের কাছে কাছে গিয়ে তাদেরকে উৎসাহ দিচ্ছি। আমরা চাই কৃষকরা বারোমাস ফসল চাষ করুক।

আমাদের উৎসাহে কৃষক আবেদ আলী গ্রীষ্মকালীন বারী জাতের টমেটো চাষ করেছেন।এতে তিনি লাভবান হবেন বলে আমি আশা রাখি।

হবিগঞ্জ/বুলাকী

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়