RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২০ ||  অগ্রাহায়ণ ১৭ ১৪২৭ ||  ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২

নরসিংদীতে স্ত্রীর সঙ্গে অভিমানে বিষপানে স্বামীর আত্মহত্যা

নরসিংদী প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২৩:৪২, ২৮ অক্টোবর ২০২০  
নরসিংদীতে স্ত্রীর সঙ্গে অভিমানে বিষপানে স্বামীর আত্মহত্যা

নরসিংদীতে স্ত্রীর সঙ্গে অভিমান করে মারুফ (৩২) নামে এক ব্যক্তি বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন। বুধবার (২৮ অক্টোবর) ঢাকার মিডফোর্ড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে তার পরিবার ও মনোহরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান।

নিহত মারুফ মনোহরদী উপজেলার বড়চাপা ইউনিয়নের উরুলিয়া গ্রামের শাহাদত মাস্টারের ছেলে। তিনি একটি সিমেন্ট কোম্পানির বিক্রয় প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তার স্ত্রী আয়েশা আক্তার একই উপজেলার কৃষ্ণপুর গ্রামের এমদাদুল হকের মেয়ে ও মনোহরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সিনিয়র স্টাফ নার্স হিসেবে কর্মরত। নিহত মারুফ মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) সন্ধ্যায় বিষপান করেন।

নিহতের পরিবার এবং পুলিশ সূত্রে জানা যায়, প্রায় ১০ বছর আগে মনোহরদী উপজেলার কৃষ্ণপুর গ্রামের এমদাদুল হকের মেয়ে আয়েশাকে ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন মারুফ। বিয়ের পর স্ত্রীকে নার্সিংয়ে পড়াশোনা এবং সরকারি চাকরিতে যোগাদানের ব্যবস্থাও তিনি করেছিলেন। দাম্পত্য জীবনে তাদের মাহিদ (৪) এবং আলিম (৩) নামে দুটি ছেলে সন্তান রয়েছে।

নিহত মারুফের মায়ের নামে মনোহরদী সদরে থাকা কয়েক শতাংশ জমি তাকে লিখে দিয়েছিলেন। সম্প্রতি স্ত্রী আয়েশা সেই সম্পত্তি নিজের নামে লিখে দিতে স্বামীকে চাপ প্রয়োগ করে আসছিলেন। কিন্তু মারুফ তাতে রাজি হচ্ছিল না। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মাঝে প্রায়ই ঝগড়া হতো।

এরই জের ধরে গত দুই দিন আগে স্ত্রী আয়েশা তার স্বামীর বিরুদ্ধে মনোহরদী থানায় নির্যাতনের অভিযোগ দায়ের করেন। এর এপ্রেক্ষিতে গত মঙ্গলবার বিকেলে মনোহরদী থানা পুলিশ মারুফকে থানায় ডেকে এনে অভিযোগের বিষয়ে জিজ্ঞেস করেন। সেখান থেকে ফেরার পথে কীটনাশক পান করে মারুফ।

পরে শ্বশুর বাড়িতে স্ত্রীর কাছে গিয়ে কীটনাশক পান করার কথা জানালে তাকে মনোহরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। অবস্থা জটিল হওয়ায় দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে ঢাকায় প্রেরণ করেন। আজ বুধবার সকালে মিডফোর্ড হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

মনোহরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান জানান, যুবকের আত্মহত্যার বিষয়টি শুনেছি। তবে এ বিষয়ে পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ লিখিত অভিযোগ করেনি এখনো।

মাহমুদ/আমিনুল

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়