RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ২৮ নভেম্বর ২০২০ ||  অগ্রাহায়ণ ১৪ ১৪২৭ ||  ১১ রবিউস সানি ১৪৪২

বন্ধুকে হত্যার দায়ে ৩ যুবকের মৃত্যুদণ্ড

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:০৫, ২৯ অক্টোবর ২০২০  
বন্ধুকে হত্যার দায়ে ৩ যুবকের মৃত্যুদণ্ড

বন্ধুকে হত্যার দায়ে তিন যুবককে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন ঠাকুরগাঁওয়ের আদালত।

বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) বিকেলে ঠাকুরগাঁওয়ের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ বিএম তারিকুল কবীর এ রায় ঘোষণা করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলো—নওগাঁর মান্দা থানার বারিল্যা উত্তরপাড়া গ্রামের মৃত আকবর আলীর ছেলে সুইট আলম (২৯), দিনাজপুরের চিবিরবন্দর থানার দক্ষিণ পলাশবাড়ি গ্রামের মাহাতাব উদ্দীনের ছেলে মেকদাদ বিন মাহাতাব ওরফে পলাশ (২৯) এবং ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী থানার ভানোর সরকারপাড়া গ্রামের বজির উদ্দীনের ছেলে হাসান জামিল (৩২)। হাসান জামিল ভুয়া কাগজপত্র তৈরি করে উচ্চ আদালত থেকে জামিনে বের হয়ে পলাতক আছে।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণ থেকে জানা যায়, দিনাজপুরের চিরিরবন্দর থানার আন্ধারমুহা গ্রামের ইদ্রিস আলীর ছেলে রেজাউল ইসলাম স্থানীয় টেকনিক্যাল অ‌্যান্ড বিএম কলেজে লেখাপড়ার পাশাপাশি ওয়ার্ল্ডভিশন-২১ নামের একটি মাল্টিলেভেল মার্কেটিং (এমএলএম) কোম্পানিতে চাকরি করতেন। চাকরির সুবাদে উল্লিখিত যুবকদের সঙ্গে তার বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে। দিনাজপুরের পার্বতীপুরে ওই কোম্পানির নতুন অফিস খোলার কাজ করার সময় রেজাউলের মোটরসাইকেলের প্রতি অপর বন্ধুদের চোখ পড়ে। তারা ওই মোটরসাইকেলটি হাতিয়ে নিতে রেজাউলকে হত্যার পরিকল্পনা করে। পরিকল্পনা অনুযায়ী রেজাউলকে দিনাজপুরের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ভানোর এলাকায় হাসান জামিলের বাড়ির কাছে নিয়ে আসে।

২০১৫ সালের ৪ মার্চ সন্ধ‌্যায় রেজাউলকে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ভানোর কৈমারী গ্রামের একটি বাঁশঝাড়ে নিয়ে যায় ওই তিন যুবক। সেখানে রেজাউলকে ঘাড় মটকে ও গলায় রশি পেঁচিয়ে হত্যা করে তারা। পরে রেজাউলের পরনের কাপড় ও শুকনো ডাল-পাতা দিয়ে তার মরদেহ আগুনে পুড়িয়ে বিকৃত করে।

আসামিদের স্বীকারোক্তি ও সাক্ষীদের জবানবন্দির ভিত্তিতে হত্যার অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় আদালত উক্ত রায় দেন।

হিমেল/রফিক

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়