RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ২৮ জানুয়ারি ২০২১ ||  মাঘ ১৪ ১৪২৭ ||  ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

গফরগাঁওয়ে সরব আ.লীগ, নীরব বিএনপি

মাহমুদুল হাসান মিলন, ময়মনসিংহ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১২:০৩, ২৭ নভেম্বর ২০২০  
গফরগাঁওয়ে সরব আ.লীগ, নীরব বিএনপি

পৌর নির্বাচনে উৎসবের আমেজ নেই ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে। নির্বাচনকে ঘিরে ভোটারদের মাঝে নেই কোনো আনন্দ উল্লাস। 

আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী হিসেবে নাম ঘোষণা করা হয়েছে বর্তমান পৌরসভার মেয়র এসএম ইকবাল কবীর সুমনকে। দলের ঐতিহ্য রক্ষায় বিএনপি থেকে মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন আব্দুল্লাহ আল মামুন।  তবে শেষ পর্যন্ত ভোটের মাঠে বিএনপি থাকবে কি না তা নিয়ে সংশয় রয়েছে ভোটারদের। 

নির্বাচনে তফসিল ঘোষণা হওয়ার পর গফরগাঁও পৌর এলাকা ঘুরে দেখা যায়, কোথাও নেই কোনো নির্বাচনী আলোচনা। নেই ভোটের আমেজ। এমনকি নিজেদের প্রার্থীতা জানান দিতেও কোনো প্রার্থীর নেই পোস্টার, ব্যানার বা ফেস্টুন।

এদিকে, বর্তমান মেয়রের জনপ্রিয়তা তুঙ্গে।  সাধারণ ভোটারদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, গফরগাঁও পৌর নির্বচনে কাউন্সিলর পদে নির্বাচন জমলেও মেয়র পদে জমবে না। কারণ এই নির্বাচনে বর্তমান মেয়রের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করার মতো যোগ্য ব্যক্তি এখন পর্যন্ত প্রার্থী হয়নি। 

গফরগাঁও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হালিম মানিক বলেন, পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ডের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ পৌর ও উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাদের সম্মতিতে একক প্রার্থী হিসেবে বর্তমান পৌরসভার মেয়র, পৌর আওয়ামী লীগের সদস্য ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহবায়ক এসএম ইকবাল কবীর সুমনকে ঘোষণা করে রেজুলেশন করে কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।

গফরগাঁও উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মজিবর রহমান বলেন, এখন পর্যন্ত তারা সিদ্ধান্ত নেয়নি নির্বাচনে অংশ নিতে। শিগগিরই   দলীয়ভাবে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। 

একই কথা বললেন উপজেলা বিএনপির সভাপতি এবি ছিদ্দিকুর রহমান। তিনি বলেন, নির্বাচনের সুষ্ঠ পরিবেশ থাকলে নেতাকর্মীদের সঙ্গে সমন্বয় করে প্রার্থী দেওয়া হবে। 

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার শামসুন্নাহার বলেন, ১৯৯৯ সালে ৯টি ওয়ার্ড নিয়ে গফরগাঁও পৌরসভা গঠিত হয়। মোট ভোটার ২২ হাজার ২৯৬ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১০ হাজার ৮৬১ জন এবং নারী ভোটার ১১ হাজার ৪৩৫ জন। নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পূর্ণ করতে সব ধরনের প্রস্তুতি নিচ্ছে নির্বাচন কমিশন। 

তিনি আরও বলেন, প্রতিদিনই বিভিন্ন পদে প্রার্থীরা মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করছেন। ১ ডিসেম্বর মনোনয়ন দাখিলের শেষ সময়।  যাচাই-বাছাই হবে ৩ ডিসেম্বর এবং প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১০ ডিসেম্বর। আগামী ২৮ ডিসেম্বর ১০টি কেন্দ্রের ৬৯টি কক্ষে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। 

ভোটার ইসলাম উদ্দিন ও সফিকুল ইসলাম বলেন, যে সরকার ক্ষমতায় থাকে সেই দলের নেতাকর্মীদের আধিপত্য থাকে গফরগাঁওয়ে। এখানে বিরোধীদল নির্বাচনে এসে সুবিধা করতে পারে না। এখানে নির্বাচনের আমেজ নেই। কাউন্সিলর প্রার্থীদের মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা নির্বাচন কিছুটা জমতে পারে। 

ময়মনসিংহ/সাইফ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়