RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ২৫ জানুয়ারি ২০২১ ||  মাঘ ১১ ১৪২৭ ||  ১০ জমাদিউস সানি ১৪৪২

শেষ মুহূর্তে আয়কর রিটার্ন জমা দিতে করদাতাদের ভিড়

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:৩৭, ৩০ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১১:৩৮, ৩০ নভেম্বর ২০২০
শেষ মুহূর্তে আয়কর রিটার্ন জমা দিতে করদাতাদের ভিড়

চট্টগ্রাম কর অঞ্চল সমূহে শেষ মুহুর্তে আয়কর রিটার্ন জমা দিতে ভিড় করছেন করদাতারা।

জমা দেওয়ার সময়সীমা বৃদ্ধি না করার ঘোষণায় এবং টিআইএন গ্রহণকারী প্রত্যেকের রিটার্ন জমা দেওয়া বাধ্যতামূলক হওয়ায় কর অঞ্চলগুলোতে ভিড় হচ্ছে ব্যাপক। তবে রিটার্ন জমা দিতে গিয়ে অনেক করদাতা হয়রানির শিকার হচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সরেজমিন চট্টগ্রাম করঅঞ্চল দপ্তর সমূহ ঘরে দেখা যায়, দপ্তরের সামনে সামিয়ানা টাঙিয়ে আয়কর রিটার্ন জমা নেওয়ার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। তবে করদাতাদের জন্য রাখা হয়নি কোনো সহায়তাকারী। করদাতারা কোনো সহায়তা চাইলে দেখিয়ে দেওয়া হচ্ছে কর আইনজীবীদের। আবার রিটার্ন দাখিলের জন্য এনবিআর-এর প্রদেয় বিনামূল্যের ফরম সরবরাহ করছেন না কর অঞ্চলের কর্মকর্তারা। পার্শ্ববর্তী ফটোকপির দোকান থেকে ১০ টাকার বিনিময়ে ফরম কিনতে পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। সরকারি প্রেসে ছাপানো আইকর রিটার্ন ফরম দোকানে বিক্রি হচ্ছে প্রতিটি ১০ টাকা দামে।

সোমবার (৩০ নভেম্বর) সকালে চট্টগ্রাম আগ্রাবাদে অবস্থিত সিডিএ আবাসিক এলাকার কর অঞ্চল সমূহ সরেজমিন পরিদর্শনে দেখা যায়, অসংখ্য করদাতা রিটার্ন জমা দিতে ভিড় করছেন।

আগ্রাবাদ সিডিএ আবাসিক এলাকার পিএইচপি ভবনে কর অঞ্চল -৩ এর দপ্তরে রিটার্ন জমা দিতে আসা কলেজ শিক্ষক নুরুল হক রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘রিটার্ন জমা দিতে সকালে কাপ্তাই থেকে আগ্রাবাদ এসেছি। কিন্তু এখানে কোনো সহায়তা করছেন না কর্মকর্তারা। কোনোভাবে সহায়তা চাইলে ওনারা আয়কর আইনজীবীর কাছে যাওয়ার পরামর্শ দেন। এছাড়া বিনামূল্যে আয়কর রিটার্ন ফরম সরবরাহের কথা থাকলেও এই ফরম অফিস থেকে সরবরাহ করছেন না। পার্শ্ববর্তী ফটোকপির দোকান থেকেই সরকারি বিজি প্রেসে ছাপানো অরজিনাল ফরম কিনতে হচ্ছে প্রতিটি ১০টা দাম দিয়ে। 
বিনামূল্যের ফরম টাকা দিয়ে কিনতে বাধ্য হওয়ার কথা জানান, করদাতা সাবরিনা সুলতানা, আনোয়ার হোসেন, তোফাজ্জাল হোসেনসহ আরো অনেকে।

এই প্রতিবেদক সরেজমিন পিএইচপি ভবনে কর অঞ্চল-৩ কর রিটার্ন জমা দেওয়ার কথা জানিয়ে ফরম চাইলে একই ভবনে হুজুরের দোকান থেকে ১০ টাকার বিনিময়ে ফরম কিনে নেওয়ার পরামর্শ দেন কর্মকর্তারা। পরে হুজুরের দোকানে গেলে সরকারি বিজি প্রেসে ছাপানো অরজিনাল আয়কর রিটার্ন ফরম কিনতে পাওয়া যায় ১০ টাকা দাম দিয়ে।

ফরম বিক্রেতা আয়কর ভবনের হুজুর নামের পরিচিত এই ব্যক্তি রাইজিংবিডিকে জানান, চট্টগ্রামে রিটার্ন ফরমের সংকট থাকায় তিনি ঢাকা থেকে এসব ফরম কিনে এনেছেন। আয়কর কর্মকর্তাদের জ্ঞাতসারেই তিনি এই ফরম বিক্রি করছেন।

এ প্রসঙ্গে চট্টগ্রাম কর অঞ্চলের কমিশনার ব্যারিস্টার মোতাসিম বিল্লাহ ফারুকী রাইজিংবিডিকে জানান, কর অঞ্চলসমূহের দপ্তরের সামনেই মেলার আদলে করদাতাদের কাছ থেকে রিটার্ন জমা নেয়া হচ্ছে। এ ব্যাপারে কর্মকর্তারা প্রয়োজনীয় সহায়তাও দিচ্ছেন।

বিনামূল্যের ফরম ১০ টাকায় বিক্রি হওয়ার সত্যতা স্বীকার করে এই কর্মকর্তা বলেন, এবার মেলা না হওয়ায় ফরমের সংকট রয়েছে। ফলে সরকারিভাবে বিনামূল্যে ফরম সরবরাহ করা সম্ভব হচ্ছে না। সরকারি বিজি প্রেসে ছাপানো অরজিনাল ফরম ফটোকপির দোকানে বিক্রি হওয়ার কথা জানালেও তিনি ফরম পর্যাপ্ত সরবরাহ না থাকার কথা জানান। এতে করদাতারা হয়রানির শিকার হওয়ার সত্যতাও তিনি স্বীকার করেন।

চট্টগ্রাম/রেজাউল/বুলাকী

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়