Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||  আশ্বিন ৩ ১৪২৮ ||  ০৯ সফর ১৪৪৩

হিলিতে পেঁয়াজের কেজি ৩০ টাকা

দিনাজপুর প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:০৭, ২ ডিসেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৭:৩৪, ২ ডিসেম্বর ২০২০
হিলিতে পেঁয়াজের কেজি ৩০ টাকা

হিলি বাজারে নতুন পেঁয়াজ

দিনাজপুরের হিলিতে প্রতিকেজি পাতা পেঁয়াজ মাত্র ৩০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। পাতা ছাড়া ৪০ থেকে ৪৫ টাকা। এছাড়া পুরাতন দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকা কেজি দরে। 

বুধবার (২ ডিসেম্বর) দুপুরে হিলি সবজি বাজার ঘুরে জানা গেছে, দুই সপ্তাহ আগে পুরাতন পেঁয়াজের দাম ছিল ৮০ থেকে ৮৫ টাকা কেজি। বাজারে নতুন পেঁয়াজ ওঠায় প্রায় অর্ধেকে নেমে এসেছে পেঁয়াজের দাম। 

সবজি ব‍্যবসায়ীরা পাতা পেঁয়াজ ২০ টাকা কেজি দরে পাইকারি কিনে তা খুচরা বিক্রি করছেন ৩০ টাকায়। পাতা ছাড়া নতুন পেঁয়াজ ৩৫ থেকে ৪০ টাকা পাইকারি কিনে তা খুচরা বিক্রি করছেন ৪৫ টাকায়। 

এদিকে নতুন পেঁয়াজ বাজারে ওঠায় পুরাতন পেঁয়াজের দাম কমে গেছে। কেজিপ্রতি ৪৮ থেকে ৫০ টাকা দরে পাইকারি কিনে খুচরা বাজারে তা ৬০ টাকা কেজিদরে বিক্রি করছেন ব‍্যবসায়ীরা।

বাজারে সবজি কিনতে আসা জনি শেখ রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘পেঁয়াজের দাম অনেক কমে গেছে। কিছুদিন আগে ৮০ থেকে ৯০ টাকা কেজি পেঁয়াজ কিনেছিলাম। আজ পাতা পেঁয়াজ কিনলাম মাত্র ৩০ টাকা করে। আর পাতা ছাড়া পেঁয়াজ নিলাম ৪৫ টাকা দরে।’

সবজি ব‍্যবসায়ী সোহেল মিয়া রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘বাজারে নতুন পেঁয়াজ ওঠায় হঠাৎ দাম কমে গেছে পেঁয়াজের। ২০ টাকা দরে পাতা পেঁয়াজ কিনে তা ৩০ টাকা দামে বিক্রি করছি। পাতা ছাড়া পেঁয়াজ ৩৫ থেকে ৪০ টাকা দামে কিনে খুচরা বিক্রি করছি ৪৫ টাকায়। আবার পুরাতন শুকনা পেঁয়াজ ৪৮ থেকে ৫০ টাকা দরে পাইকারি কিনে বিক্রি করছি ৬০ টাকায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘৮০ থেকে ১০০ টাকার পেঁয়াজ এখন ৩০ থেকে ৪৫ টাকায় কিনতে পেরে সাধারণ ক্রেতাদের মধ‍্যে সস্তি ফিরে এসেছে।’

হিলি বাজারের পেঁয়াজের পাইকারি ব‍্যবসায়ী রাশেদুল ইসলাম বলেন, ‘হঠাৎ করে পেঁয়াজের দাম কমে যাওয়ায় আমাদের লোকশান গুণতে হচ্ছে। আজ বাজার দর হিসেবে ৪৮ থেকে ৫০ টাকা পাইকারি দিচ্ছি। এই পেঁয়াজ আমাদের কেনা আছে ৫৬ থেকে ৫৭ টাকা কেজি দরে। বর্তমান প্রতি কেজি পেঁয়াজে আমাদের লোকশান গুণতে হচ্ছে ৮ থেকে ৯ টাকা।’

পেঁয়াজ চাষি আকরাম হোসেন রাইজিংবিডিক বলেন, ‘আজ বাজারে এক মণ পাতা পেঁয়াজ নিয়ে আসছিলাম। প্রতি কেজি পেঁয়াজ ২০ টাকা দরে বিক্রি করলাম। এবার এক বিঘা জমিতে পেঁয়াজের চাষ করেছি। প্রতি বছর মাত্র তিন থেকে চার শতক জমিতে পেঁয়াজের আবাদ করতাম। এবছর পেঁয়াজের দাম ভাল থাকায় বেশি জমিতে পেঁয়াজ চাষ করেছি।’

মোসলেম উদ্দিন/সনি

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়