Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ০৪ মার্চ ২০২১ ||  ফাল্গুন ১৯ ১৪২৭ ||  ১৯ রজব ১৪৪২

চেয়ারম‌্যানের ড্রাইভারের বিরুদ্ধে মাদ্রাসার কম্বল লুটের অভিযোগ

নীলফামারী সংবাদদাতা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:৩৫, ১৫ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ২০:৫০, ১৫ জানুয়ারি ২০২১
চেয়ারম‌্যানের ড্রাইভারের বিরুদ্ধে মাদ্রাসার কম্বল লুটের অভিযোগ

অভিযুক্ত মতিন

নীলফামারীর ডোমারের পাঙ্গা চৌপথী হাফিজিয়া মাদ্রাসার ছাত্র ও শিক্ষকদের মাঝে বিতরণের জন‌্য দেওয়া ১৩টি কম্বল লুটের অভিযোগ উঠেছে ইউপি চেয়ারম্যানের গাড়ি চালকের বিরুদ্ধে। 

বুধবার (১৩ জানুয়ারি) গভীর রাতে চেয়ারম‌্যানের কথা বলে ছাত্রদের কাছ থেকে জোর করে কম্বলগুলো নিয়ে যান তিনি।

গাড়ি চালক আব্দুল মতিন পাঙ্গামটকপুর ইউপি চেয়ারম্যান এমদাদুল হক এন্দার গাড়ি চালক ও ছাত্রলীগ নেতা। তিনি মটুকপুর গ্রামের আব্দুর রশিদের ছেলে।

শুক্রবার (১৫ জানুয়ারি) মাদ্রাসার মোহতামিম হাফেজ হাবিবুল্লাহ মেজবাহ জানান, গত সোমবার (১১ জানুয়ারি) বিকালে রুপালী ব্যাংকের দেওয়া ৩৬টি কম্বল ডোমার উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহীনা শবনম তাদের মাদ্রাসার ছাত্র ও শিক্ষকদের মাঝে বিতরণ করেন। বুধবার গভীর রাতে মতিন মাদ্রাসায় ঢুকে ইউপি চেয়ারম্যানের কথা বলে ছাত্রদের কাছ থেকে জোর করে ১৩টি কম্বল নিয়ে যায়। পরে আবার কম্বলগুলো ফেরত দেওয়ার জন্য চেষ্টা করে। তবে স্থানীয়দের পরামর্শে কম্বলগুলো ফেরত নেওয়া হয়নি।

পাঙ্গা মটুকপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি দুলাল হোসেন জানান, চেয়ারম্যানের ড্রাইভার মতিনসহ কয়েকজন লুটকৃত কম্বল ফেরত দেওয়ার জন্য আসে। তবে স্থানীয়দের বাধার মুখে তারা পালিয়ে যায়।

মতিনের বিরুদ্ধে নিজেকে ছাত্র লীগের পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন জায়গায় প্রভাব খাটানোর অভিযোগ রয়েছে। তবে ছাত্র লীগের সঙ্গে মতিনের কোনো সম্পর্ক নেই বলে সংগঠনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

পাঙ্গামটকপুর ইউপি চেয়ারম্যান এমদাদুল হক এন্দা বলেন, ‘আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আমাকে হেয় করতে কম্বল লুটের ঘটনা সাজানো হয়েছে। একটি এটি ষড়যন্ত্র। ইউপি সদস্যদের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ থাকলেও আমার বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত কোনো অভিযোগ নেই।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিনা শবনম বলেন, ‘বিষয়টি শুনেছি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ 

এদিকে বারবার চেষ্টা করেও অভিযুক্ত মতিনের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

সিথুন/সনি

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়