Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৯ অক্টোবর ২০২১ ||  কার্তিক ৩ ১৪২৮ ||  ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

টুঙ্গিপাড়ায় বন্ধুদের সহযোগিতায় স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:৫৯, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২১   আপডেট: ২১:০৮, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২১
টুঙ্গিপাড়ায় বন্ধুদের সহযোগিতায় স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় বন্ধুর সহযোগিতায় তুলে নিয়ে গিয়ে নবম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণ করেছে দুর্বৃত্তরা। 

এ ঘটনায় ওই স্কুলছাত্রীর বাবা বাদি হয়ে শুক্রবার রাতে টুঙ্গিপাড়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। 

মামলার এজাহার থেকে জানা গেছে, ১৪ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় উপজেলার একটি কোচিং সেন্টার থেকে পড়া শেষ করে বন্ধু মিতুল হোসেনের সঙ্গে বাসায় ফিরছিল ওই শিক্ষার্থী। তারা নতুন বাজার বটতলা এলাকায় পৌঁছলে ইজিবাইক চালকের সহযোগিতায় মিতুল, রসুল খান ও রাজীব শেখ চোখ বেঁধে তুলে নিয়ে যান ওই শিক্ষার্থীকে।

পরে ওই তিন যুবক স্কুলছাত্রীকে চেতনানাশক স্প্রে করে ধর্ষণের চেষ্টা করে। কিন্তু ওই শিক্ষার্থী বাধা দিলে তার মাথায় আঘাত করে তারা। এক পর্যায়ে ওই শিক্ষার্থী অজ্ঞান হয়ে পড়লে তাকে ধর্ষণ করে। পরে রাত ৮টার দিকে অচেতন অবস্থায় তাকে তার বাসার সামনে ফেলে রেখে যায়।

পরে পরিবারের লোকজন উদ্ধার করে টুঙ্গিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। রাতে অবস্থার অবনতি ঘটলে গোপালগঞ্জ ২৫০-শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেও তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে পরদিন ১৫ ফেব্রুয়ারি বিকালে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। 

ভুক্তোভোগী শিক্ষার্থীর বাবা বলেন, এ ঘটনায় আমার পরিবারের ওপর দিয়ে ঝড় বয়ে যাচ্ছে। এ ঘটনায় টুঙ্গিপাড়া থানায় তিনজন‌কে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছি। আমি দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। 

আসামিরা হলেন, উপজেলার গওহরডাঙ্গা গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে মিতুল হোসেন (১৫), টুঙ্গিপাড়া গ্রামের আনোয়ার উদ্দিন খানের ছেলে রসুল খান (২৫) ও শেখ শুকুর আহম্মেদের ছেলে রাজিব শেখ (২২)।

টুঙ্গিপাড়া থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এএফএম নাসিম জানান, এ বিষযে ভুক্তোভোগীর বাবা টুঙ্গিপাড়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে। ভুক্তোভোগীর মেডিক্যাল টেস্টের জন্য গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। 
 

গোপালগঞ্জ/বাদল সাহা/এসএন 

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ