Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ১৭ এপ্রিল ২০২১ ||  বৈশাখ ৪ ১৪২৮ ||  ০৪ রমজান ১৪৪২

গাজীপুরে বন্দুকসহ ব্যাংকের নিরাপত্তাকর্মী গ্রেপ্তার

গাজীপুর প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:১১, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১   আপডেট: ২০:৩৯, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১
গাজীপুরে বন্দুকসহ ব্যাংকের নিরাপত্তাকর্মী গ্রেপ্তার

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার পল্লীবিদ্যুৎ এলাকা থেকে বন্দুক ও গুলিসহ একটি বেসরকারি ব্যাংকের নিরাপত্তা কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। 

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে গ্রেপ্তারকৃতকে গাজীপুর জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। সেসময়ে তার হেফাজত থেকে একটি ডুপ্লিকেট লাইসেন্স ও একটি এলিট ফোর্সের আইডি কার্ড উদ্ধার করা হয়।

গ্রেপ্তার নিরপত্তাকর্মী হলো- ময়মনসিংহের কোতয়ালী থানার গোহাইলকান্দি এলাকার মোহাম্মদ হোসেনের ছেলে আবুল হোসেন (৩২)।

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কালিয়াকৈর থানার অফিসার ইনাচর্জ মনোয়ার হোসেন চৌধুরী।

তিনি জানান, এ ঘটনায় মঙ্গলবার সকালে কালিয়াকৈর থানার এসআই মোরশেদ আলী মোল্লা বাদী হয়ে নিরাপত্তাকর্মী আবুল ও অবসরপ্রাপ্ত নায়েক জাহের আলীকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। গ্রেপ্তারকৃতকে গাজীপুর জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। 

জানা গেছে, গতকাল সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সকালে থানা পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে এক নিরাপত্তাকর্মী আগ্নেয় অস্ত্র নিয়ে ওই ব্যাংকে অবস্থান করছেন। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ওই ব্যাংকের প্রধান ফটকে গিয়ে নিরাপত্তা কর্মীকে আটক করে। এসময় তার কাছ থেকে একটি অবৈধ একনলা বন্দুক, পাঁচ রাউন্ড গুলি, একটি ডুপ্লিকেট লাইসেন্স ও একটি এলিট ফোর্সের আইডি র্কাড উদ্ধার করা হয়। 

পরে পুলিশ আটককৃত নিরাপত্তাকর্মীকে নিয়ে ওই ব্যাংকের ব্যবস্থাপকের কাছে যায়। তার কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি আগ্নেয়াস্ত্রের বৈধতার কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেননি।

মামলার বাদি কালিয়াকৈর থানার এসআই মোরশেদ আলী মোল্লা জানান, চন্দ্রা পল্লীবিদ্যুৎ এলাকার একটি ব্যাংকের নিরাপত্তা কর্মী আবুল হোসেন কালিয়াকৈর উপজেলার সাকাশ্বর এলাকায় জমি কিনে বাড়ি নির্মাণ করে সেখানেই পরিবার নিয়ে বসবাস করছেন।

গ্রেপ্তারকৃত নিরাপত্তা কর্মীর বরাত দিয়ে ওই এসআই আরও জানান, ওই আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি নরসিংদীর রায়পুরা থানার আলীনগর এলাকার মৃত আবুল হাসেমের ছেলে অবসরপ্রাপ্ত সেনা নায়েক জাহের আলীর কাছ থেকে ভাড়া এনেছিলেন। তবে কী উদ্দেশ‌্যে তিনি এসব করেছেন তা জিজ্ঞাসাবাদে জানা যাবে।

রফিক সরকার/সনি

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়