Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শুক্রবার   ০৬ আগস্ট ২০২১ ||  শ্রাবণ ২২ ১৪২৮ ||  ২৪ জিলহজ ১৪৪২

হাত-পা বেঁধে নির্যাতন: ৪ দিনেও কেউ গ্রেপ্তার হয়নি

বাগেরহাট প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:৩২, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১০:৫৭, ১ মার্চ ২০২১
হাত-পা বেঁধে নির্যাতন: ৪ দিনেও কেউ গ্রেপ্তার হয়নি

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে মোবাইল চুরিকে কেন্দ্র করে আশিক জোমাদ্দার (২২) নামে এক যুবককে হাত-পা বেঁধে নির্যাতনের মামলার আসামিদের গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।

২৪ ফেব্রুয়ারি সকালে মোরেলগঞ্জ উপজেলার চিংড়াখালী ইউনিয়নের বড় জামুয়া গ্রামে ওই যুবককে নির্যাতন করা হয়। পরের দিন ২৫ ফেব্রুয়ারি নির্যাতনের শিকার আশিক বাদী হয়ে ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য সোহেল খানসহ চারজনের বিরুদ্ধে মোরেলগঞ্জ থানায় মামলা করেন। 

এদিকে, নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ায় টনক নড়েছে পুলিশের। চারদিন পার হলেও কেউ আটক না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয়রা। নির্যাতনের পর আশিককে উদ্ধার করে মোরেলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে স্থানীয়রা। 

আশিক জমাদ্দার পিরোজপুরের ইন্দুরকানি উপজেলার চরনি পত্তাশি গ্রামের বাসিন্দা। পাশাপাশি এলাকা হওয়ায় চিংড়াখালী ইউনিয়নের বড় জামুয়া গ্রামে আশিকের যাওয়া-আসা ছিল।

আহত আশিকের চাচা জিল্লুর রহমান বলেন, বাজার থেকে একটি মোবাইল চুরির বিষয় এলাকায় জানাজানি হয়। এই বিষয়ে আশিক শুধু সোহেলকে বলেছিল- আপনার লোক চুরি করতে পারে। এই কথা বলার জেরে সোহেল আশিককে ডেকে নিয়ে প্রথমে বসতঘরে ফেলে মারধর করেন। পরে ঘরের বাইরে এনে আশিকের হাত-পা বেঁধে লাঠি দিয়ে পেটান। জিল্লুর রহমান এই নির্যাতনের বিচার চান। 

বাগেরহাটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) মীর মো. সাফিন মাহমুদ বলেন, ঘটনার পর অভিযুক্ত ইউপি সদস্য সোহেল খান ও তার সহযোগীরা পলাতক রয়েছেন। তাদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান তিনি
 

টুটুল/বকুল  

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়