Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ২৪ জুন ২০২১ ||  আষাঢ় ১০ ১৪২৮ ||  ১২ জিলক্বদ ১৪৪২

না.গঞ্জে হেফাজত-পুলিশ দফায় দফায় সংঘর্ষ, আহত ২০

নিজস্ব প্রতিবেদক, নারায়ণগঞ্জ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:৩৭, ২৮ মার্চ ২০২১   আপডেট: ১৮:৪৩, ২৮ মার্চ ২০২১
না.গঞ্জে হেফাজত-পুলিশ দফায় দফায় সংঘর্ষ, আহত ২০

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ উপজেলার শিমরাইল, মৌচাক ও সাইনবোর্ড এলাকায় দফায় দফায় হেফাজতে ইসলামের কর্মী ও পুলিশ মধ্যে সংঘর্ষে দুইজন গুলিবিদ্ধসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। পাঁচটি গাড়িতে আগুন দেওয়া হয়েছে। অর্ধশতাধিক যানবাহন ভাংচুর করা হয়েছে।

রোববার (২৮ মার্চ) হেফাজতে ইসলামের ডাকা সকাল-সন্ধ্যা হরতালে সকাল থেকে ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে টায়ার পুড়িয়ে, গাছের গুড়ি ফেলে অবরোধ করে হরতাল সমর্থকরা৷ বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত কয়েক দফায় পুলিশ-হেফাজতে ইসলামের কর্মীদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়। পরিস্থিতি সামলাতে পুলিশ কাঁদুনে গ্যাস ও শটগানের গুলি ছোড়ে। দুপুর ১টার দিকে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, পরিস্থিতি তাদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সংঘর্ষে দুই তরুণ গুলিবিদ্ধ হয়েছে৷ তাদের প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে, পরে ঢাকায় নেওয়া হয়েছে৷ আহত হয়েছেন অন্তত ২০ জন৷ সকালে হেফাজতের নেতাকর্মীরা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করেন। তারা সড়কের কয়েকটি স্থানে টায়ার, গাছের গুড়ি ফেলে ও বাঁশে আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করেন।

জেলা পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে শটগানের গুলি ও কাঁদুনে গ্যাসের শেল নিক্ষেপ করা হয়েছে। যানবাহন চালু করার চেষ্টা চলছে। সংঘর্ষে একজন গুলিবিদ্ধ হওয়ার কথা শুনেছেন বলে জানান পুলিশ সুপার।

হরতালকে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জ শহরে ডিআইটির রেলওয়ে জামে মসজিদে ভোর থেকে অবস্থান নেয় কয়েকশত হেফাজতে ইসলামের কর্মী-সমর্থক৷ মসজিদের বাইরে প্রহরায় ছিল ব়্যাব, পুলিশ, বিজিবি সদস্যরা৷ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতায় তারা মসজিদ থেকে বেরুতে পারেনি৷ সকাল সাড়ে ১০টার দিকে জেলা হেফাজতে ইসলামের সভাপতি মাওলানা আব্দুল আউয়ালের নির্দেশে তারা মিছিল বা স্লোগান না দিয়ে মসজিদ ত্যাগ করেন৷

রেলওয়ে মসজিদ এলাকাসহ শহরের চাষাঢ়া, সাইনবোর্ড, শিমরাইলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে বিপুলসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন ছিল। হরতালের সার্বিক পরিস্থির বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, সকাল থেকে জেলার কিছু কিছু স্থানে অবরোধ-বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে হরতাল সমর্থকরা৷ তবে তা নিয়ন্ত্রণে এনেছে পুলিশ৷

রাকিব/বকুল

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়