Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ১২ মে ২০২১ ||  বৈশাখ ২৯ ১৪২৮ ||  ২৯ রমজান ১৪৪২

মা দোকানে ফেলে গেলেন ছেলেকে, অতঃপর…

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:৩৪, ৩ এপ্রিল ২০২১  
মা দোকানে ফেলে গেলেন ছেলেকে, অতঃপর…

যশোরের বেনাপোল স্থলবন্দরে চায়ের দোকানে ফেলে যাওয়া শিশুটিকে খুঁজে নিয়েছেন তার বাবা। বাবার কোলে উঠে আনন্দে মেতে ওঠে শিশু আলিফ হাসান (দেড় বছর)। 

শনিবার (৩ এপ্রিল) দুপুর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শিশুর ছবি দেখে বেনাপোল পোর্ট থানায় যোগাযোগ করেন কালু মিয়া। বেলা ১২টার দিকে তার কাছে আরিফকে হস্তান্তর করে পুলিশ। 

শিশু আলিফ হাসান নড়াইলের কালিয়া উপজেলার খড়লিয়া গ্রামের কালু মিয়ার ছেলে। শুক্রবার (২ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৯টার দিকে বেনাপোল স্থলবন্দরের আল আরাফাহ্ ব্যাংকের নিচে তোফাজ্জেলের চায়ের দোকানে আলিফকে ফেলে রেখে যায় মা মুন্নি বেগম। দীর্ঘ সময় অপেক্ষার পরও তার মা না আসায় দোকানি তোফাজ্জেল শিশুটিকে নিয়ে বেনাপোল পোর্ট থানায় হস্তান্তর করেন। পুলিশ শিশুটিকে হেফাজতে রাখার পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার ছবি দিয়ে পরিচয় খোঁজার চেষ্টা করে। এরই সূত্র ধরে বাবা কালু মিয়া পোর্ট থানার ওসির সঙ্গে যোগাযোগ করেন। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পোর্ট থানা থেকে তার কাছে আলিফকে তুলে দেওয়া হয়। 

সন্তানকে বুকে জড়িয়ে কালু মিয়া বলেন, ‘আমার স্ত্রী পরকীয়ায় আসক্ত। তিনি আমার সংসার করবেন না বলে পূর্বে কয়েকবার জানিয়েছেন। বিষয়টি ঠিক হয়ে যাবে মনে করে আমি কিছু বলিনি। বরং তাকে বুঝিয়েছি। শুক্রবার (২ এপ্রিল) আমার অজান্তে আমার আট বছরের মেয়েকে বাড়িতে রেখে, দেড় বছরের শিশুকে নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়। পরে আমাকে ফোনে জানায় আমার বাচ্চাকে বেনাপোল বাজারে এক চায়ের দোকানে রেখে চলে গেছে। একথা শুনে আমি অনেক খোঁজাখুঁজি করেও ছেলের খবর পাইনি। পরে ফেসবুকের মাধ্যমে জানতে পারি আমার ছেলে বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশের হেফাজতে আছে।’ 

পোর্ট থানার ওসি মামুন খান জানান, শিশুটিকে তার বাবা কালু মিয়ার কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। 

রিটন/বকুল 

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়