Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ২৮ জুলাই ২০২১ ||  শ্রাবণ ১৩ ১৪২৮ ||  ১৬ জিলহজ ১৪৪২

চুরির অপবাদে যুবককে অগ্নিদগ্ধ করে নির্যাতন, গ্রেপ্তার ১

জয়পুরহাট সংবাদদাতা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:২৩, ২৫ এপ্রিল ২০২১   আপডেট: ২২:০৫, ২৫ এপ্রিল ২০২১
চুরির অপবাদে যুবককে অগ্নিদগ্ধ করে নির্যাতন, গ্রেপ্তার ১

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নির্যাতনের শিকার তোতা মিয়া

গরু চুরির অপবাদ দিয়ে মধ্যরাতে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে এক যুবককে গাছের সঙ্গে বেঁধে কোমর থেকে পা পর্যন্ত আগুনে ঝলসে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার (২৪ এপ্রিল) দিবাগত রাতে জয়পুরহাটের সদর উপজেলার ধারকি পাথারপাড়া গ্রামে তাকে নির্যাতন করা হয়।

এ ঘটনায় জয়পুরহাট থানায় মামলা হলে রোববার (২৫ এপ্রিল) সকালে ধারকি পাথারপাড়া গ্রাম থেকে ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। জেলা পুলিশ সুপার মাছুম আহাম্মেদ ভুঞা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

গ্রেপ্তারকৃত রফিকুল ইসলাম ধারকি পাথারপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল করিম মন্ডলের ছেলে এবং বম্বু ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য।

এলাকাবাসীর বরাত দিয়ে পুলিশ সুপার মাছুম আহাম্মেদ ভুঞা জানান, ওই গ্রামের রিকশাচালক তোতা মিয়াকে গরুচোর সন্দেহে শনিবার সন্ধ্যায় স্থানীয় ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলাম তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। পরে মধ্যরাতে ইউপি সদস্যসহ একই গ্রামের জুয়েল, আবু খয়ের ও নিজাম গরু চুরির স্বীকারোক্তি আদায়ের চেষ্টা করে। তোতা মিয়া অস্বীকার করলে নির্জন মাঠের মধ্যে গাছের সঙ্গে বেঁধে হাতের তালুতে সিগারেটের আগুন দিয়ে ছেঁকা দিয়ে নির্যাতন চালায়। পরে তার কোমর থেকে পা পর্যন্ত পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিলে দগ্ধ হয়ে তোতা মিয়া জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। রাত সাড়ে ৩টার দিকে তারা তোতা মিয়াকে মুমূর্ষু অবস্থায় জেলা আধুনিক হাসপাতালে ফেলে পালিয়ে যায়।

পুলিশ সুপার জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলামকে তার বাড়ি থেকে আটক করে। এ ঘটনায় জয়পুরহাট সদর থানায় তোতা মিয়ার স্ত্রী ডলি বেগম বাদী হয়ে রফিকুল ইসলামসহ কয়েকজনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত ৬-৭ জনকে আসামি করে মামলা করেন।

ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে বলে জানান পুলিশ সুপার। 

শামীম/বকুল

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়