Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ২৫ অক্টোবর ২০২১ ||  কার্তিক ৯ ১৪২৮ ||  ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

কিশোরীকে ধর্ষণ-হত্যা: ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:০২, ২৬ মে ২০২১  
কিশোরীকে ধর্ষণ-হত্যা: ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলায় এক কিশোরীকে ধর্ষণ ও অবৈধ গর্ভপাতে মৃত্যুর ঘটনায় এক ইউপি চেয়ারম্যান এবং এক আওয়ামীলীগ নেতাসহ পাঁচজনকে আসামি করে মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।  

বুধবার (২৬ মে) দুপুরে মামলা দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করেন ময়মনসিংহ জেলা ও জজ আদালতের আইনজীবী মকবুল হোসেন। তিনি জানান, গত ২৪ মে (মঙ্গলবার) জেলা নারী ও শিশু নির্যাতনদমন আদালতে নিহত কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে অভিযোগ দায়ের করেন। পরে বিজ্ঞ আদালত ঈশ্বরগঞ্জ থানাকে অভিযোগটি মামলা হিসেবে নিতে নির্দেশ দেন।   

মামলার আসামিরা হলেন, উপজেলার ৯নং উঁচাখিলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শফিকুল ইসলাম শফিক, তার বড় ভাই স্থানীয় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মঞ্জুরুল হক মঞ্জু, নিহত কিশোরীর মা আছমা, চেয়ারম্যানের দেহরক্ষী দুলাল মিয়া ও মাহাবুবুল আলম।

মামলার এজাহারের বরাত দিয়ে আইনজীবী মকবুল হোসেন জানান, ওই কিশোরীকে তার মায়ের মৌন সম্মতিতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান শফিক টানা ধর্ষণে করলে এক পর্যায়ে সে গর্ভবতী হয়ে পড়ে। এতে আসামিরা বিপাকে পড়ে বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য ওই কিশোরীকে কবিরাজী ওষুধ সেবন করায়। এতে কিশোরীর রক্তক্ষরণ হলে গত ৯ মে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসকরা তাকে ঢাকায় রেফার্ড করেন। কিন্তু আসামিরা কিশোরীকে ঢাকায় না নিয়ে বাড়িতে গোপন করে রাখে। এতে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হতে থাকে। পরে গত ১১ মে তাকে ঢাকায় একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরের দিন রাত ২টার দিকে তার মৃত্যু হয়।  

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে আসামি মঞ্জুরুল হক মঞ্জু বলেন, ‘সামনে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। এতে যাতে আমরা দলীয় প্রতীক না পাই এবং আমাদের হেয় করার জন্য রাজনৈতিক প্রতিপক্ষরা এমনটি ঘটিয়েছে। এ ঘটনার সঙ্গে আমরা কোনোভাবে জড়িত নই।’ 

মিলন/বকুল

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ