Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ২৪ জুলাই ২০২১ ||  শ্রাবণ ৯ ১৪২৮ ||  ১২ জিলহজ ১৪৪২

খুলনার করোনা হাসপাতালে ধারণ ক্ষমতার চেয়ে দেড় গুণ রোগী

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:৩৪, ১৬ জুন ২০২১   আপডেট: ১০:৩৮, ১৬ জুন ২০২১
খুলনার করোনা হাসপাতালে ধারণ ক্ষমতার চেয়ে দেড় গুণ রোগী

বেড সংকট থাকায় খুলনা করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালের অপেক্ষমান রোগী

খুলনা করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে ধারণ ক্ষমতার চেয়ে দেড় গুণ রোগী রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

১০০ শয্যাবিশিষ্ট এ হাসপাতালে ১৫৪ জন রোগী চিকিৎসা নিচ্ছেন। রোগীর সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় হাসপাতালে শয্যা সংকট দেখা দিয়েছে। রোগীর চাপ সামলাতে হাসপাতালের ফ্লোরেও চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

বুধবার (১৬ জুন) সকালে খুলনা করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালের ফোকাল পারসন ও খুমেক হাসপাতালের আরএমও ডা. সুহাস রঞ্জন হালদার ঘটনার সত‌্যতা নিশ্চিত করেছেন।

আরএমও জানান, হাসপাতালের ধারণ ক্ষমতার চেয়ে রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। ফলে চিকিৎসাসেবা দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। যেহেতু এখানে ১০০ বেড রয়েছে, তাই অতিরিক্ত ভর্তি হওয়া রোগীদের ফ্লোরে রেখে সেবা দিতে হচ্ছে।

এদিকে, খুমেক পিসিআর ল্যাবের পরীক্ষায় একদিনে ২০০ জনের করোনা পজেটিভ এসেছে। যা নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় করোনা শনাক্তের হার ছিলো ৩৭.৩১ শতাংশ।

ডা. সুহাস রঞ্জন হালদার জানান, মঙ্গলবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ১৫১ জন রোগী ভর্তি ছিল। তা বেড়ে এখন ১৫৪ জন হয়েছে। এর মধ্যে করোনায় আক্রান্ত রোগী ১২৪ এবং বাকি ৩০ জন উপসর্গ নিয়ে ভর্তি রয়েছেন। হাসপাতালের আইসিইউতে ২০ জন ও এইচডিইউতে ২০ রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৫৩ জন। একই সময়ে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন ৪৪ জন। এর মধ্যে মঙ্গলবার সকাল ৮টা পর্যন্ত করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন ৬ জন। এর মধ্যে করোনায় দু’জন এবং করোনা উপসর্গ নিয়ে চারজনের মৃত্যু হয়েছে।

খুলনা মেডিক‌্যাল কলেজের উপাধ্যক্ষ ডা. মেহেদী নেওয়াজ জানান, খুমেকের পিসিআর মেশিনে ৫৩৬ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২০০ জনের করোনা পজেটিভ এসেছে। যার মধ্যে খুলনার ৩৭৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে ১৪৯ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া বাগেরহাট ৩১ জন, যশোরের ৫ জন, সাতক্ষীরার ৫ জন, ঝিনাইদহের ৬ জন ও নড়াইল জেলার ৪ জন রয়েছে।

খুলনা সিভিল সার্জন অফিসের মেডিক‌্যাল অফিসার (রোগ নিয়ন্ত্রণ) ডা. শেখ সাদিয়া মনোয়ারা ঊষা জানান, মঙ্গলবার পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় খুলনা জেলা ও মহানগরীতে নতুন করে ১৬৬ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ সময় ৫৩৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। খুলনায় মোট নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ৩০ শতাংশ।

খুলনা/নূরুজ্জামান/বুলাকী

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়