Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ২৪ জুলাই ২০২১ ||  শ্রাবণ ৯ ১৪২৮ ||  ১২ জিলহজ ১৪৪২

বগুড়ায় করোনায় ৭ দিনে ১০ জনের মৃত্যু, ২৪ ঘণ্টায় ৪

বগুড়া প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:২০, ১৬ জুন ২০২১   আপডেট: ১৫:২৪, ১৬ জুন ২০২১
বগুড়ায় করোনায় ৭ দিনে ১০ জনের মৃত্যু, ২৪ ঘণ্টায় ৪

বগুড়ায় বাড়তে শুরু করেছে করোনার সংক্রমণ।  পাশাপাশি দীর্ঘ হচ্ছে করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের মৃত্যুর তালিকাও। 

জেলায় গত ৭ দিনে জেলায় করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ১৯০ জন আর মৃত্যু হয়েছে ১০ জনের। সুস্থ হয়েছেন ১৬৪ জন। এছাড়া ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪১ এবং মারা গেছেন দুই নারীসহ ৪ জন।

বুধবার (১৬ জুন) দুপুরে বগুড়ার ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ডেপুটি সিভিল সার্জন জানান, জেলায় এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ১২ হাজার ৬৫৪জন, সুস্থ হয়েছেন ১২ হাজার ৮০ জন এবং মারা গেছেন ৩৩৩ জন। চিকিৎসাধীন রয়েছেন ২৪১ জন। তবে এখনও পর্যন্ত বগুড়ায় করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে কারো শরীরে ভারতীয় ভেরিয়েন্টের অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি।

গত ২৪ ঘণ্টায় বগুড়ায় করোনায় মারা যাওয়া ব্যক্তিরা হলেন— জয়পুরহাট জেলার রতন মণ্ডল (৪৪) ও লুৎফুনন্নেসা (৬০), সাতক্ষীরা জেলার জাহাঙ্গীর আলম (৩৬) এবং বগুড়া শহরের ঠনঠনিয়া এলাকার মালতী বেগম (৬৭)। এদের মধ্যে রতন মণ্ডল টিএমএসএস হাসপাতালে, লুৎফুনন্নেসা ও জাহাঙ্গীর আলম শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক‌্যাল কলেজ ও হাসপাতাল (শজিমেক) এবং মালতী বেগম মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

ডা. মোস্তাফিজুর রহমান আরও জানান, ২৪ ঘণ্টায় ২৬১ নমুনার ফলাফলে নতুন করে যে, ৪১ জন করোনায় শনাক্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে সদরে ৩২ জন, গাবতলীতে ৩ জন, শেরপুর ২ জন, নন্দীগ্রাম ২ জন এবং কাহালুতে ২ জন করে আক্রান্ত হয়েছেন।  ২৬১ নমুনার মধ্যে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক‌্যাল কলেজের পিসিআর ল্যাবে ২৫১টি নমুনায় ৩৭ জনের এবং টিএমএসএস মেডিক‌্যাল কলেজের পিসিআর ল্যাবের ১০ নমুনায় ৪ জনের করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন। মধ্যে এছাড়া একই সময়ে সুস্থ হয়েছেন ৩২ জন।

সরেজমিনে দেখা যায়, জেলায় করোনার সংক্রমণ প্রতিরোধে ৬ জুন থেকে জেলা প্রশাসন বি‌ধিনি‌ষেধ আরোপ করেছে। কিন্তু জনগণ তা মানছে কদাচিৎ। বগুড়ার জনগণের মাঝে স্বাস্থ্যবিধি মানার কোনো বালাই নেই। তবে প্রতিদিন সন্ধ্যার পর জেলা প্রশাসন থেকে দোকানপাট বন্ধের জন্য ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত রাখা হয়েছে। তবে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানের সময় বগুড়ার দোকানপাট এবং ব্যবসায়ীরা তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করলেও ম্যাজিস্ট্রেটরা চলে গেলে পুনরায় তারা দোকানপাট খুলে বসছেন।

সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাসিম রেজা জানান, বগুড়ায় ৬০ শতাংশ মানুষ মুখে মাস্ক ব্যবহার করছেন। তবে সামাজিক দুরত্ব কেউ মানছেন না। জেলা প্রশাসনের বেধে দেওয়া বিধিনিষেধ যেন মানে, এজন্য প্রতিদিন সন্ধ্যার পর ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হচ্ছে।

এনাম/বুলাকী

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়