Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ২৬ জুলাই ২০২১ ||  শ্রাবণ ১১ ১৪২৮ ||  ১৩ জিলহজ ১৪৪২

বগুড়ায় ৬ দিনে করোনায় ২১ জনের মৃত্যু

বগুড়া প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৪:৪৬, ২১ জুন ২০২১  
বগুড়ায় ৬ দিনে করোনায় ২১ জনের মৃত্যু

বগুড়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও দুই নারীসহ ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ৬ দিনে করোনায় মারা গেছেন ২১জন। এ নিয়ে বগুড়ায় এখন পর্যন্ত করোনায় মারা গেলেন ৩৫০ জন। 

এছাড়া জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৮৪ জন করোনায় শনাক্ত হয়েছেন। একই সময়ে সুস্থ হয়েছেন ২৯ জন। 

সোমবার (২১ জুন) দুপুরে বগুড়ার ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন এসব তথ্য নিশ্চিত করেনছেন।

২৪ ঘণ্টায় করোনায় মারা যাওয়া ব্যক্তিরা হলেন, বগুড়া সদরের আলহাজ্ব মান্নান (৭০), নওগাঁ জেলার রানীনগর এলাকার কোহিনুর (৪০), জয়পুরহাট জেলার কালাই এলাকার জাহেদা বিবি (৪০), নওগাঁ জেলার আত্রাই এলাকার শেখ তারেক (৬১) এবং নওগাঁর মান্দা এলাকার আসাদুল হক (৬৫)। এদের মধ্যে মান্নান ও কোহিনুর শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে, জাহেদা সরকারি মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে এবং তারেক ও আসাদুল টিএমএসএস হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ২১৯টি নমুনার ফলাফলে নতুন করে ৮৪ জন করোনায় শনাক্ত হয়েছেন। এর মধ্যে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজের পিসিআর ল্যাবে ১৯৫টি নমুনায় ৭৭ জনের পজিটিভ এসেছে। টিএমএসএস মেডিক্যাল কলেজের পিসিআর ল্যাবে ২৪ নমুনায় ৭ জন করোনায় পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন। আক্রান্তের হার ৩৮ দশমিক ৩৫ শতাংশ। নতুন আক্রান্ত ৮৪ জনের মধ্যে সদরের ৮০ জন, আদমদীঘিতে ২ জন, শিবগঞ্জ ও সোনাতলায় একজন করে আক্রান্ত হয়েছেন।  

তিনি আরও জানান, নতুন করে ৮৪ জন করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় জেলায় মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১২ হাজার ৯৫৬ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১২ হাজার ২১১ জন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন আছেন ৩৯৫ জন।

এদিকে, করোনা সংক্রমণের বিস্তার রোধে গত ১৯ জুন রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে ২৬ জুন পর্যন্ত বগুড়া পৌরসভা ও সদর উপজেলায় জেলা প্রশাসন থেকে কঠোর বিধি নিষেধ আরোপ করা হয়েছে। কঠোর বিধি নিষেধের প্রথম দিন শহরে যানবাহন এবং জনসমাগম কম থাকলেও দ্বিতীয় দিন ২১ জুন সোমবার শহরে জনসমাগম অনেক বেড়েছে, বেড়েছে যানবাহনও। 

কাঁচা বাজার, নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য ওষুধের দোকানের পাশাপাশি অনেক ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠান খোলা রাখতে দেখা গেছে।  মার্কেট বন্ধ রাখার কথা থাকলেও শহরের নিউ মার্কেটে ঢুকে দেখা গেছে মার্কেটের অনেক দোকানীই তাদের দোকানের অর্ধেক শাটার খুলে বসেছেন। ক্রেতারাও সেখানে গিয়ে কেনাকাটা করছেন। তবে কঠোর বিধি-নিষেধের প্রথম দিনের মতো পুলিশি চেকপোস্টও লক্ষ করা যায়নি।

সহকারি কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাসিম রেজা জানান, কঠোর বিধি নিষেধ বাস্তবায়ন করতে জেলা প্রশাসন থেকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের টহল চলমান আছে। তবে সবচেয়ে বেশি যেটি দরকার মানুষের সচেতনতা। আমরা ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করছি। জরিমানা করছি। মানুষদের উচিৎ সচেতন হওয়া প্রশাসনকে সহযোগিতা করা।

এনাম/মাহি 

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়