Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ০৪ আগস্ট ২০২১ ||  শ্রাবণ ২০ ১৪২৮ ||  ২৩ জিলহজ ১৪৪২

কালিহাতীতে কুড়িয়ে পাওয়া অস্ত্র নিয়ে তোলপাড়

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৫:৩৬, ২১ জুলাই ২০২১   আপডেট: ০৮:৩৪, ২১ জুলাই ২০২১
কালিহাতীতে কুড়িয়ে পাওয়া অস্ত্র নিয়ে তোলপাড়

টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার পাইকড়া ইউনিয়নের গোলড়া পূর্বপাড়া এলাকায় কুড়িয়ে পাওয়া ওয়ান শুটার অস্ত্র নিয়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। বিষয়টি স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও পুলিশকে জানালেও কোন প্রদক্ষেপ না নেয়ায় আতঙ্কের দেখা দিয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, গত দুই সপ্তাহ আগে ওই গ্রামের আব্দুল হাই ওরফে টুক্কু মাছ ধরতে গিয়ে অস্ত্রটি কুড়িয়ে পায়। অস্ত্রটি তার কাছে রেখে দেন। কয়েকদিন পর ওই অস্ত্রটি তার নাতি জিহাদের কাছে রাখতে দেয়। জিহাদ তার বন্ধুদের অস্ত্রটি দেখালে এলাকায় জানা জানি হয়। পরে বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্য মোতালেব হোসেনকে অবগত করেন। তিনি বিষয়টি কালিহাতী থানা পুলিশকে জানালেও কোন ব্যবস্থা নেয়নি।

সরেজমিন ওই বাড়িতে গিয়ে আব্দুল হাই ওরফে টুক্কু ও তার নাতি জিহাদকে পাওয়া যায়নি। তার ছেলের বউ শিল্পী বেগম বলেন, জিহাদ নারীর বাড়ী বেড়াতে গেছে। আমার শ্বশুড় বাড়ি বাইরে আছে। যে পিস্তলটি পেয়ে সেটি মরিচা পড়া, অকেজো। আমার শ্বশুড় পাওয়ার পর ঘর রেখে দেয়। আমার ছেলে তার বন্ধুদের দেখালে এলাকায় জানাজানি হয়। বিষয়টি স্থানীয় মেম্বার মোতালেবকে জানানো হয়। মেম্বার পুলিশের কাছে জমা দেওয়ার দায়িত্ব নেয়। পুলিশকে জানালে টাকা দাবি করেন। পরে কয়েক দিন পর মেম্বার নিজেই এসে পিস্তলটি ফেলে দিতে বলেন। পরে আমরা পিস্তলটি ফেলে দিয়েছি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ওই এলাকার একাধিক ব্যক্তি বলেন, পিস্তলটি এখনও আব্দুল হাই টুক্কুর ঘরে রয়েছে। মেম্বার, চেয়ারম্যান ও পুলিশ মিলে বিষয়টি ধামা চাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে। এছাড়াও কালিহাতীর এমপি হাসান ইমাম খান সোহেল হাজারীকে অবগত করা হয়েছে।

ইউপি সদস্য মোতালেব বলেন, বিষয়টি কালিহাতী থানার এসআই ফয়েজকে জানানো হলেও তিনি বিশেষ কারনে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি। এছাড়াও ঘটনাটি চেয়ারম্যান ও এমপি অবগত আছেন।
পাইকড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আজাদ হোসেন বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই।
কালিহাতী থানার এসআই ফয়েজ বলেন, বিষয়টি আমাকে জানানো হয়নি।

কাওছার/আমিনুল

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়