Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||  আশ্বিন ৮ ১৪২৮ ||  ১৩ সফর ১৪৪৩

খানজাহান আলী মাজার এখন বেড়ানোর স্থান

বাগেরহাট প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:০০, ২৪ জুলাই ২০২১   আপডেট: ১০:০৪, ২৪ জুলাই ২০২১
খানজাহান আলী মাজার এখন বেড়ানোর স্থান

করোনার কারণে বাগেরহাটে বিশ্ব ঐতিহ্য ষাটগম্বুজ মসজিদসহ সরকারি বেসরকারি বিনোদন কেন্দ্রগুলো বন্ধ থাকায় শিশু কিশোর ও তরুণরা ভিড় জমিয়েছে ঐতিহাসিক খানজাহান (রহ.) মাজারে।

ঘরবন্দি জীবন থেকে একটু স্বস্তি পেতে ঈদের অবকাশে এই মাজারেই ছুটে আসতে দেখা গেছে তাদের। ঈদের দিন থেকেই ঐতিহাসিক মাজারটি বেড়ানোর স্থানে পরিণত হয়। বেড়াতে আসা তরুণদের মধ্যে ছিল না স্বাস্থ্যবিধি, অধিকাংশের মুখেই ছিল না মাস্ক।

তাদের বক্তব্য, কত সময় আর ঘরবন্দি হয়ে থাকা যায়। আটকাভাবে তো আর জীবন বাঁচেনা, তাই বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে বের হয়েছি।

মাজারে ঘুরতে আসা বাগেরহাট সদর উপজেলার সুগন্ধি গ্রামের স্কুল শিক্ষার্থী রাসেল শেখের ভাষ্য, করোনা ভাইরাসের কারণে দীর্ঘদিন ধরে স্কুল বন্ধ। আমরা ঘরবন্দি হয়ে থাকি, বের হতে পারিনা কোন জায়গায়। ঈদে বন্ধুরা মিলে ঘুরতে বের হয়েছি। প্রথমে ঐতিহাসিক ষাটগম্বুজ মসজিদ দেখতে গেলে সেখানে ঢুকতে দেয়নি। তাই খানজাহান আলী মাজারে এসেছি। এখন দেশের যে পরিস্থিতি তাতে ঘরের থেকে বের হওয়া ঠিক না তারপরেও কত সময় আর ঘরবন্দি হয়ে থাকা যায়।

বাগেরহাট সরকারি পিসি কলেজের শিক্ষার্থী মাহমুদুর রহমান বললেন, করোনার কারণে আগের মতো আর আড্ডা, চলাফেরা হচ্ছে না। বন্ধুদের সঙ্গে নিয়মিত দেখা করা যায় না। এজন্য একটু খারাপ আছি। তাই মাজারে আসলাম। অনেকদিন পর বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দিচ্ছি।

আরেক শিক্ষার্থী মুশফিকুর রহমান বলেন, প্রতি বছর ঈদ আসলে আমাদের একটা ট্যুর থাকে। ঈদের তিনদিনই আমরা ঘোরাঘুরির মধ্যে থাকি। মোটরসাইকেলে নিয়ে বাইরে থাকি, খাওয়া দাওয়া করি, আড্ডা দেই। এবারের যে করোনা পরিস্থিতি তাতে বাইরে যাওয়া তো দূরে থাক বাড়ি থেকে বের হতেই ভয় লাগে।

মুশফিকুর রহমান আরো বললেন, সবকিছুই ঠিক আছে তবে পড়ালেখার যে কি হলো? কবে আমাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলবে?

বাগেরহাট সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ মোছাব্বেরুল ইসলাম বলেন, করোনার ভয়াবহ পরিস্থিতির কারণে সরকার দেশের সব পর্যটন ও বিনোদন কেন্দ্রগুলো বন্ধ ঘোষণা করে। বাগেরহাটের ষাটগম্বুজ মসজিদসহ সরকারি-বেসরকারি বিনোদন কেন্দ্রগুলোও সে কারণে বন্ধ রাখা হয়েছে। বিনোদন কেন্দ্রে বন্ধ থাকার কারণে মানুষজন উন্মুক্ত হযরত খানজাহান (রহ.) মাজারে ভিড় করছেন।

টুটুল/টিপু

সর্বশেষ