Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||  আশ্বিন ৩ ১৪২৮ ||  ০৯ সফর ১৪৪৩

লকডাউনে পাগড়ি-শেরওয়ানি নিয়ে হাসপাতালে যাচ্ছিলেন তারা!

নোয়াখালী প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:০০, ২৫ জুলাই ২০২১  
লকডাউনে পাগড়ি-শেরওয়ানি নিয়ে হাসপাতালে যাচ্ছিলেন তারা!

করোনা সংক্রমণরোধে ঘোষিত কঠোর লকডাউনে নোয়াখালী জেলাশহরে চেকপোস্ট বসিয়ে তৎপর জেলা প্রশাসন। বিনাপ্রয়োজনে মানুষ বাইরে বের হলে জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হতে হচ্ছে। তবে লকডাউনের প্রথম দুই দিনের তুলনায় তৃতীয় দিন রোববার (২৫ জুলাই) সড়কে যানবাহন বেশি দেখা গেছে। তবে চেকপোস্টে প্রতিটি গাড়ি থামিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। 

এমন সময় অটোরিকশাযোগে এলেন দুই ব্যক্তি। পুলিশ জিজ্ঞাসা করতেই তারা জানালেন, হাসপাতালে যাচ্ছেন। সন্দেহ হলো দায়িত্বরত ম্যাজিস্ট্রেটের। তল্লাশি করলে ব্যাগ থেকে বেরিয়ে এলো বিয়ের পাগড়ি-শেরওয়ানি।

রোববার (২৫ জুলাই) দুপুরে নোয়াখালীর জিলা স্কুলের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় লকডাউন বাস্তবায়নে জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আসাদুজ্জামান রনি চেকপোস্ট বসিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছিলেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আসাদুজ্জামান রনি বলেন, ‘ব্যাগ খুলে বিয়ের পাগড়ি ও শেরওয়ানি পেয়ে তাদের জিজ্ঞেস করি- আজকাল কি হাসপাতালেও বিয়ে হয়? তারা আর উত্তর খুঁজে পেলেন না। বুঝলেন ধরা পড়ে গেছেন। অবশেষে দোষ স্বীকার করে বললেন, মিথ্যা বলেছেন।’ পরে তাদের সতর্ক করে বাসায় ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আসাদুজ্জামান রনি বলেন, লকডাউনে যারা প্রয়োজন ছাড়া বের হচ্ছেন, তাদের জরিমানা করা হচ্ছে। এছাড়াও সতর্ক করা হচ্ছে। শনিবার (২৪ জুলাই) সারা দিন ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ১৭২ মামলায় ১ লাখ ২৯ হাজার ১০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে বলে জানান নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। 

নোয়াখালীতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকার ঘোষিত ১৪ দিনের কঠোর লকডাউনের তৃতীয় দিনেও জেলাজুড়ে কঠোর অবস্থানে রয়েছে জেলা প্রশাসন। বিনা কারণে ঘরের বাইরে বের হলেই গুনতে হচ্ছে জরিমানা।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খোরশেদ আলম খান জানান, লকডাউন বাস্তবায়নে মাঠে সেনাবাহিনী, র‌্যাব, বিজিবি, পুলিশ ও আনসার সদস্যরা নিয়মিতভাবে কাজ করছেন। মানুষকে সচেতন করতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি বিভিন্ন সংগঠনের লোকজনও কাজ করে যাচ্ছে। 

প্রয়োজন ছাড়া কাউকে বাড়ির বাইরে বের না হতে অনুরোধ করেন জেলা প্রশাসক। 
 

সুজন/বকুল 

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়