ঢাকা     বুধবার   ১৭ আগস্ট ২০২২ ||  ভাদ্র ২ ১৪২৯ ||  ১৮ মহরম ১৪৪৪

রাইজিংবিডি’র সংবাদ পড়ে সেই সাবিনার কাছে ছুটে গেলেন ইউএনও

জয়পুরহাট প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:২৪, ৫ আগস্ট ২০২১   আপডেট: ১১:৫০, ৫ আগস্ট ২০২১
রাইজিংবিডি’র সংবাদ পড়ে সেই সাবিনার কাছে ছুটে গেলেন ইউএনও

সাবিনার পাশে ইউএনও আরাফাত হোসেন

কোলের দুই শিশুর জন্য খাবারের আকুতি জানানো সাবিনা বেগমকে নিয়ে রাইজিংবিডিতে প্রকাশিত খবর পড়ে সেই অসহায়ের কাছে গেলেন জয়পুরহাট সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আরাফাত হোসেন।

বুধবার (৪ আগস্ট) বিকেলে সদর উপজেলার খামারি পাড়া গ্রামে সাবিনা বেগমকে দেখতে যান ইউএনও। এসময় দুই শিশুর দুধসহ সাবিনার পরিবারের জন‌্য প্রয়োজনীয় খাদ‌্যসামগ্রী ও নগদ পাঁচ হাজার টাকা তার হতে তুলে দেন ইউএনও।

খাদ‌্যসামগ্রীর মধ‌্যে ছিলো— শিশুর জন্য ৬ প্যাকেট দুধ, ২০ কেজি চাল, ২ কেজি ডাল, ৩ কেজি আলু, ২০টি ডিম, ২ কেজি তেল। এছাড়া, এসময় রাইজিংবিডি’র নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পাঠকের পাঠানো নগদ দুই হাজার টাকাও রাইজিংবিডি’র প্রতিনিধি শামীম কাদির সাবিনার হাতে তুলে দেন। 

এসময় সাবিনা বেগম আবেগে কেঁদে ফেলেন। কান্নাজড়িত কণ্ঠে তিনি বলেন, ‘রাইজিংবিডিতে সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় এই খাদ্য সহায়তা পেয়েছি।  রাইজিংবিডিকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। রাইজিংবিডি’র যেই পাঠক আমার সন্তানের জন‌্য টাকা পাঠালেন, তিনিসহ ইউএনও স্যারকেও ধন্যবাদ জানাই। আল্লা তাদের সবার ভালো করবেন।’

জয়পুরহাট সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আরাফাত হোসেন বলেন, ‘কিছু কাজ সত্যিই মনকে প্রশান্তি দেয়। একজন অসহায় মায়ের পাশে দাঁড়াতে পেরে ভালো লাগছে। চাকরি জীবনে এটাই বড় প্রাপ্তি। সরকারের মানবিক সহায়তাসহ তাকে অন্যান্য সহযোগিতাও করা হবে।’

উল্লেখ‌্য, জয়পুরহাট সদর উপজেলার খামারি পাড়া গ্রামের সাবিনা বেগম তার দুই শিশুর খাবারের জন্য দিশেহারা হয়ে পরেছিলেন। দুধের টাকা জোগাড় করতে না পেরে অসহায় সাবিনা দুই সন্তানের মধ্যে একজনকে দত্তক দিতেও চেয়েছিলেন। পরে বিষয়টি নিয়ে ‘অবুঝ শিশুর কান্না সইতে পারি না, কেউ একটু খাবার দেন’ এই শিরোনামে বুধবার (৪ আগস্ট) একটি সংবাদ প্রকাশিত হয় দেশের জনপ্রিয় নিউজ পোর্টাল রাইজিংবিডিতে। প্রকাশিত সংবাদটি জয়পুরহাটসহ দেশের বিপুল পাঠকের মাঝে সাড়া দেয়। 

শামীম/বুলাকী

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়