Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ২৭ অক্টোবর ২০২১ ||  কার্তিক ১১ ১৪২৮ ||  ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

Risingbd Online Bangla News Portal

ভারতে ইলিশ পাঠাচ্ছে ২১ রপ্তানিকারক

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:০৭, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১   আপডেট: ০৮:৩৩, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১
ভারতে ইলিশ পাঠাচ্ছে ২১ রপ্তানিকারক

খুলনাঞ্চল থেকে ভারতে ইলিশ পাঠাচ্ছে ২১ রপ্তানিকারক। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ভারতে ইলিশ রপ্তানির অনুমতি দেওয়ার পর খুলনার ৪নং ঘাট ও রূপসা ঘাটে রপ্তানিকারকদের প্রতিনিধিরা ইলিশ কিনতে হুমড়ি খেয়ে পড়ছেন। 

স্থানীয় মোকামে গত বছরের তুলনায় এবার ইলিশের পরিমাণ কম। যার কারণে দাম বেড়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানান, এ অঞ্চল থেকে ২৩ রপ্তানিকারকের প্রতিনিধিরা ইলিশ কিনছেন। রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে, আরিফ সী ফুড, সেভ এন্ড সেফটি, বাগেরহাট সী ফুড, আলফা এগ্রো, সাউদার্ন ফুড, রূপসা ফিস এন্ড এ্যালাইড, রহমানিয়া ইনপ্যাক্ট, জয় এন্টারপ্রাইজ, সী গোল্ড এক্সপোর্ট, এমএস মাহিমা এন্টারপ্রাইজ, সততা ফিস ফিড, সরদার এ্যালুমোনিয়াম, আনোয়ার ফ্রোজেন ফুড, ন্যাশনাল এগ্রো ফিসারিজ, রাব্বি এন্টারপ্রাইজ, রিয়ানস হাব, কেবি এন্টারপ্রাইজ, এবি ইন্টারন্যাশনাল, বাবস বাংলাদেশ, জনতা ফিস ও বায়োনিক সী ফুড।

রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা জানান, মহিপুর, পাথরঘাটা, চরদুয়ানী, কুয়াকাটা ও ভোলা থেকে প্রতিদিন ভোরে ইলিশ আসছে। বলেশ্বরের মাছ এখনও আসেনি। এক কেজি সাইজের ইলিশ অনেক কম। ৭০০ গ্রামের মাছ বেশি। 

নাম প্রকাশ না করার শর্তে রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা বলেন, কেউ ৮০০ গ্রাম ওজনের মাছ প্রতিকেজি ৯০০ টাকা দরে, কেউ ৮৫০ টাকা দরে কিনছেন। 
খুলনা বিএফডিসি’র মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রের ব্যবস্থাপক মো. রাসেল সিকদার জানান, এ অঞ্চল থেকে ২১ রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান ইলিশ কিনছে। প্রত্যেকে ৪০ মেট্রিক টন মাছ রপ্তানির অনুমতি পেয়েছে। তিনি জানান, ২২ থেকে ২৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ১৩২ মেট্রিক টন ইলিশ খুলনার মোকাম থেকে বেনাপোলস্থল বন্দর দিয়ে পশ্চিমবঙ্গে গেছে। গত বছর এ মোকাম থেকে দুর্গাপূজা উপলক্ষে ৩২৫ মেট্রিক টন ইলিশ পশ্চিমবঙ্গে রপ্তানি হয়। 

ইলিশ রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান অর্পিতা ট্রেড ইন্টারন্যাশনালের মালিক বিশুদানন্দ আচার্জী জানান, এবার ভারতে ৪ হাজার ৬০০ মেট্রিক টন ইলিশ রপ্তানি হবে। পশ্চিমবঙ্গে প্রতিকেজি ইলিশের রপ্তানি মূল্য বাংলাদেশি মূদ্রায় ৮৫০ টাকা। ভারত ও বাংলাদেশের কাস্টমস্ থেকে শুল্কমুক্ত সুবিধায় ইলিশের এ চালান ছাড় করা হচ্ছে।

বেনাপোল কাস্টমস্ কমিশনার আজিজুর রহমান জানান, প্রতিদিন ট্রাক বোঝায় ইলিশ পশ্চিমবঙ্গে ঢুকছে। দ্রুত রপ্তানির জন্য কাস্টমসের মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব তালিয়া ইসলাম স্বাক্ষরিত এক নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ৩ অক্টোবর পর্যন্ত রপ্তানি কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। এ বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ৫ দফা নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

দেশের চাহিদা বিবেচনায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয় বিভিন্ন সময় ইলিশ রপ্তানি বন্ধ রাখে। গত বছরও দুর্গাপূজা উপলক্ষে ইলিশ রপ্তানির অনুমতি দেয় সরকার। 
 

নূরুজ্জামান/বকুল 

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়