Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ৩০ নভেম্বর ২০২১ ||  অগ্রহায়ণ ১৬ ১৪২৮ ||  ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩

দাওয়াত খেয়ে পরিবার নিয়ে বাড়ি ফিরতে পারলেন না প্রবাসী

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৮:৫৩, ২৩ অক্টোবর ২০২১   আপডেট: ০৮:৫৫, ২৩ অক্টোবর ২০২১
দাওয়াত খেয়ে পরিবার নিয়ে বাড়ি ফিরতে পারলেন না প্রবাসী

দাওয়াত খেয়ে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বাড়ি ফিরতে পারলেন না টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার ময়থা উত্তরপাড়া গ্রামের সিঙ্গাপুর প্রবাসী আজগর আলী।

তার মামার বাড়িতে দাওয়াত শেষে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফেরার পথে রেললাইন পার হওয়ার সময় ট্রেনের ধাক্কায় আজগর আলী, তার স্ত্রী ও তার ছোট ছেলে নিহত হন।

শুক্রবার (২২ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৭টায় সদর উপজেলার ঘারিন্দা ইউনিয়নের হাতিলা নামকস্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। 
বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্য সিরাজুল ইসলাম নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হলেন—টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার ফুলকি ইউনিয়নের ময়থা উত্তরপাড়া গ্রামের সিঙ্গাপুর প্রবাসী আজগর আলী (৩০), তার স্ত্রী সানসিয়া সুলতানা সারা (২৫) ও তার ছোট ছেলে রাইয়ান (২.৫)। এ ঘটনায় তার বড় ছেলে মো. আব্দুল্লাহ (৫) আহত  হয়েছে।

সানসিয়া সুলতানা সারার ভাই জামিলুর রহমান জানান, প্রায় এক বছর আগে আজগর ছুটিতে বাড়িতে আসেন। করোনার কারণে আর যেতে পারেননি। শুক্রবার হাতিলা গ্রামে আজগর আলী তার মামার বাড়িতে দাওয়াত খেয়ে মোটরসাইকেলযোগে তারা চারজন বাড়ি ফিরছিলেন। হাতিলা রেলক্রসিং পার হওয়ার সময় ট্রেনের ধাক্কায় তারা সকলেই ছিটকে পড়ে যায়। এতে সানসিয়া সুলতানা সারা ও তার ছোট ছেলে রাইয়ান মাথায় আঘাত লেগে মগজ বেড়িয়ে পড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় আজগর আলী ও তার বড় ছেলে আব্দুল্লাহ আহত হন। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠান।

টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক রাজিব পাল চৌধুরী জানান, হাসপাতালে দুইজনকে আনা হয়েছিল। শিশুটিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছুটি দেওয়া হয়েছে। আজগরের অবস্থার অবনতি হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য সিরাজুল ইসলাম জানান, ঢাকার নিউরোলজি হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। বিষয়টি দুঃখজনক। 

ঘারিন্দা রেল স্টেশন মাস্টার সোহেল রানা জানান, স্বামী স্ত্রী ও দুই সন্তানকে নিয়ে মোটরসাইকেলযোগে রেল লাইন পার হচ্ছিলেন। এসময় ঢাকাগামী ৭৯৮ নম্বর কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস ট্রেনের ধাক্কায় মোটরসাইকেলটি পাশের খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই এক নারী ও এক শিশু ছেলে নিহত হন। আহত হন একজন পুরুষ ও আরেক ছেলে। হতাহতরা সবাই একই পরিবারে।

কাওছার/বুলাকী

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়