Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ০৫ ডিসেম্বর ২০২১ ||  অগ্রহায়ণ ২১ ১৪২৮ ||  ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

অনুতপ্ত সন্তানরা ফিরিয়ে নিলেন সেই বৃদ্ধা মা’কে

সাভার প্রতিনিধি  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৪:৪৭, ২৬ অক্টোবর ২০২১   আপডেট: ০৭:৫৪, ২৬ অক্টোবর ২০২১
অনুতপ্ত সন্তানরা ফিরিয়ে নিলেন সেই বৃদ্ধা মা’কে

ঢাকার ধামরাইয়ে বৃদ্ধা মায়ের খোঁজ না নেয়াকে নিজেদের ভুল স্বীকার করে তাকে ফিরিয়ে নিয়েছেন বিত্তবান সেই সন্তানরা।

সোমবার (২৫ অক্টোবর) বিকেলে উপজেলার কুশুরা ইউনিয়নের নরসিংহপুরে বৃদ্ধার ভাতিজা সাবেক এমপি এমএ মালেকের বাড়িতে স্থানীয় সংবাদকর্মীদের উপস্থিতিতে বৃদ্ধা মরিয়ম বেগমকে (৯৫) সন্তানদের জিম্মায় দেয়া হয়। 

এর আগে দুপুরের দিকে ওই বৃদ্ধার তিন ছেলে মো. জাহাঙ্গীর আলম, মো. আলমগীর হোসেন এবং মো. হুমায়ুন কবির তাদের মা'কে নিতে আসেন।

এসময় তারা নিজেদের (ভাইদের) ব্যক্তিগত ভুলে এমন ঘটনা ঘটেছে এবং মায়ের যত্নে আরও সচেতন হওয়ার আশ্বাস দিয়ে মাকে নিজেদের সঙ্গে নিয়ে যেতে চান।

পরে এমএ মালেকের সহধর্মিণী মীনা মালেক স্থানীয় কয়েকজন সাংবাদিকদের সামনে মরিয়ম বেগমকে ছেলেদের কাছে দিয়ে দেন। পরে তাকে ছেলে মো. আলমগীর হোসেনের বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়। এই আলমগীর হোসেনের বাড়িতে এতোদিন মরিয়ম বেগম ছিলেন।

ছেলে মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘মা গত কয়েকদিন আমাদের আত্মীয়ের বাসায়ই ছিলেন। তাই আমারাও বিষয়টি স্বাভাবিকভাবে নিয়েছিলাম। ভাইদের ব্যক্তিগত কিছু বিষয়ে অমিল থাকায় মায়ের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে একটু সময় লেগেছে। আমরা সকল ভাই বসে মায়ের থাকা এবং যত্নের বিষয়ে পরবর্তী করণীয় ঠিক করে নিবো।’

ধামরাই উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা হোসাইন মোহাম্মদ হাই জকী বলেন, ‘অবশেষে তারা (ছেলেরা) ভুল বুঝতে পেরে বৃদ্ধ মাকে তাদের কাছে নিয়ে গেছেন। আশা করছি এখন তারা মায়ের প্রকৃত সম্মান দিতে এবং পারিবারিক বন্ধন সুদৃঢ় করতে আরও সচেতন হবেন।’

প্রসঙ্গত, গত ১৫ অক্টোবর একাই ছোট ছেলের কাছে যেতে গিয়ে স্থানীয় বঙ্গবাজার এলাকার রাস্তার পাশে পড়ে যান মরিয়ম বেগম। পরে প্রথমে তাকে উদ্ধার করে আবদুল লতিফের বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর মরিয়ম বেগমকে তার ভাইয়ের ছেলে সাবেক সাংসদ এমএ মালেকের বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই গত ৯ দিন ছিলেন তিনি। এই সময়ে মরিয়েমের ৬ ছেলের কেউ-ই মায়ের খোঁজ নেননি। তবে অসুস্থ দুই মেয়ে নিয়মিত খোঁজ নিয়েছেন।

আরিফুল/আমিনুল

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়