ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ১১ আগস্ট ২০২২ ||  শ্রাবণ ২৭ ১৪২৯ ||  ১২ মহরম ১৪৪৪

কাশিয়ানীতে আ.লীগের ৫ নেতার পদত্যাগ 

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:৩৯, ১ নভেম্বর ২০২১  
কাশিয়ানীতে আ.লীগের ৫ নেতার পদত্যাগ 

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে আওয়ামী লীগ থেকে ৫ জন পদত্যাগ করেছেন। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষে কাজ করতে তারা পদত্যাগ করেছেন বলে জানা গেছে। তবে কাশিয়ানী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতাদের দাবি, পদত্যাগকারীরা স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষে নয় বরং অসুস্থতা দেখিয়ে দলীয় পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।

রোববার (৩১ অক্টোবর) রাতে কাশিয়ানী সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. আনোয়ার হোসেন আনু ও সাধারণ সম্পাদক মো. সিরাজ মোল্যা স্বাক্ষরিত পৃথক চিঠিতে ৫ নেতার পদত্যাগের বিষয়টি জানা গেছে। 

এর আগে ২৮ অক্টোবর ওই নেতারা অব্যাহতি চেয়ে দলের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন। 

দল থেকে পদত্যাগ করা নেতারা হলেন- কাশিয়ানী সদর ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মহসিন শেখ, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা সম্পাদক এম লিয়াকত হোসেন টুলু, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক জাহিদ হাছান আরজিন, সহ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শেখ সমির হোসেন ও কার্যকরি সদস্য সাহাদাত হোসেন। 

এ বিষয়ে সদর ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মহসিন শেখ বলেন, ‘আমি এখন খুব অসুস্থ। আমার দুইবার হার্টে রিং পড়াতে হয়েছে। বর্তমানে চিকিৎসার জন্য ঢাকায় রয়েছি। অসুস্থ শরীর নিয়ে দল চালানো সম্ভব হচ্ছে না। তবে দল থেকে পদত্যাগ করলেও এখনো আমি আওয়ামী লীগ করি। আওয়ামী লীগের নির্দেশনা অনুযায়ী আমার কর্মকাণ্ড চলবে।’ 

সহ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শেখ সমির হোসেন বলেন, ‘আমরা দলীয় প্রার্থী না দিয়ে উন্মুক্তভাবে নির্বাচন দিতে বলেছিলাম, কিন্তু তা দেওয়া হয়নি। কাশিয়ানী সদর ইউনিয়নে যাকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী করা হয়েছে তিনি অযোগ্য। যোগ্য ব্যক্তিকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়নি। যে কারণে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে না থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষে কাজ করতে পদ থেকে অব্যাহতি নিয়েছি।’ 

কাশিয়ানী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মোক্তার হোসেন মিয়া বলেন, ওই ৫ জন দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি চাইলে তাদেরকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। কেউ দলে থাকতে না চাইলে রাখার প্রয়োজন নেই।’ 

পদত্যাগ করা নেতারা স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষে কাজ করবেন কিনা-এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘তারা স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষে কাজ করতেই পদত্যাগ করেছেন। তা না হলে তারা কেন দল থেকে পদত্যাগ করবেন।’ 

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার ১৪টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন আগামী ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। এ ১৪টি ইউনিয়নের মধ্যে ৭টিতে দলীয় প্রার্থী ও বাকি ৭টি ইউনিয়নে দলীয় প্রার্থী ছাড়াই উন্মুক্তভাবে নির্বাচন হবে।

গোপালগঞ্জ-১ আসনের অন্তর্গত কাশিয়ানী সদর, মহেশপুর, রাতইল, পারুলিয়া, সাজাইল, মাহামুদপুর ও রাজপাট ইউনিয়নে দলীয় প্রতীকে নির্বাচন হবে। 

তবে গোপালগঞ্জ-২ আসনের অন্তর্গত ওড়াকান্দি, বেথুড়ী, হাতিয়াড়া, সিংগা, নিজামকান্দি, পুইশুর ও ফুকরা ইউনিয়নে উন্মুক্তভাবে নির্বাচন হবে। কাশিয়ানী উপজেলার সদর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ প্রার্থী মো. মশিউর রহমান খানের প্রতিদ্বন্দ্বি হয়ে নির্বাচনে লড়ছেন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও স্বতন্ত্র প্রার্থী খোকন সিকদার। 

বাদল/মাসুদ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়