ঢাকা     শনিবার   ২১ মে ২০২২ ||  জ্যৈষ্ঠ ৭ ১৪২৯ ||  ১৮ শাওয়াল ১৪৪৩

গাজীপুরে ফাঁস লাগানো নারী-পুরুষের লাশ উদ্ধার 

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:৫০, ৮ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ১৯:৫১, ৮ জানুয়ারি ২০২২
গাজীপুরে ফাঁস লাগানো নারী-পুরুষের লাশ উদ্ধার 

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের গাছা থানাধীন জাঝর উত্তর পাড়া এলাকা থেকে গলায় ফাঁস লাগানো নারী ও পুরুষের লাশ উদ্ধার করেছে গাজীপুর মেট্রোপলিটন গাছা থানা-পুলিশ। 

শনিবার (৮ জানুয়ারি) দুপুর দেড়টার দিকে ঝুলন্ত অবস্থায় ওই লাশ দুটি উদ্ধার করে। নিহতরা হলেন, গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলার বেতয়া গ্রামের মিজানুর রহমানের মেয়ে লিমা আক্তার (২৫)। তিনি স্থানীয় মোটেক সোয়েটার ফ্যাক্টরির মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট পদে কর্মরত ছিলেন। অপরজন হলেন, সিলেট সদর থানার বোরাইয়া গ্রামের রজত কান্তি চৌধুরী (৩৭)। তিনি গাজীপুরের সিগমা ডায়াগনেস্টিক সেন্টারের পরিচালক।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কালীগঞ্জের বেতয়া গ্রামের লিমা আক্তার এক সময় গাজীপুর শহরের সিগমা ডায়াগনেস্টিক সেন্টারে নার্সের চাকরি করতেন। সেখানে চাকরি করা অবস্থায় ওই ডায়াগনেস্টিক সেন্টারের মালিক রজত কান্তির সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। তাদের মধ্যে পরকীয়ার সম্পর্কের বিষয়ে জানাজানি হলে লিমা সেখান থেকে চাকরি ছেড়ে দিয়ে গাছায় চাকরি নেন। এক মাস আগে লিমা গাজীপুর মহানগরীর জাঝর উত্তর পাড়ায় ভাড়া বাসায় উঠেন। রজত কান্তি সেখানে নিয়মিত তার সঙ্গে দেখা করতে আসতেন। লিমা আক্তার গত বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) বিকেলে কারখানা থেকে বাসায় আসেন। শুক্রবার (৭ জানুয়ারি) কারখানা বন্ধ ছিল। শনিবার (৮ জানুয়ারি) লিমা কারখানায় না যাওয়ায় মালিকপক্ষ দুপুরে বাসায় লোক পাঠিয়ে দেখতে পায় তার রুমের দরজা বন্ধ। ডাকাডাকি করে সাড়া না পেয়ে দরজা ভেঙে দেখতে পায় লিমা ও রজত কান্তি গলায় ফাঁস লাগিয়ে ফ্যানের হুকের সঙ্গে ঝুলে আছে। খবর পেয়ে গাছা থানা পুলিশ নিহতদের লাশ উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। 

গাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী ইসমাইল হোসেন জানান, পরকীয়ার জের ধরে শুক্রবার (৭ জানুয়ারি) রাতের কোনো এক সময়ে তারা আত্মহত্যা করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। 
 

রেজাউল/বকুল 

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়