ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৪ মে ২০২২ ||  জ্যৈষ্ঠ ১০ ১৪২৯ ||  ২২ শাওয়াল ১৪৪৩

টাঙ্গাইল-৭ উপনির্বাচন: কারচুপির অভিযোগ জাপা প্রার্থীর

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:২৬, ১৬ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ১৫:৩০, ১৬ জানুয়ারি ২০২২
টাঙ্গাইল-৭ উপনির্বাচন: কারচুপির অভিযোগ জাপা প্রার্থীর

টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) আসনের উপনির্বাচনে ভোট কারচুপির অভিযোগ করেছেন জাতীয় পার্টির প্রাথী জহিরুল হক জহির।

রোববার (১৬ জানুয়ারি) সকাল ৮টা থেকে জেলায় প্রথমবারের মতো ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। উপ-নির্বাচনে ১২১টি ভোট কেন্দ্র রয়েছে। এতে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৭০ হাজার ৫০১ ও নারী ভোটর রয়েছেন ১ লাখ ৬৯ হাজার ৮৭৮ জন। মোট ভোটার ৩ লাখ ৪০ হাজার ৩৭৯ জন।

মির্জাপুর এসকে পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে জাতীয় পার্টির প্রাথী জহিরুল হক জহির অভিযোগ করে বলেন, ‘আওয়ামী লীগের লোকজন লাঙ্গল মার্কার এজেন্টদের বের করে দিচ্ছে। এছাড়া কয়েকটি কেন্দ্রে জোরপূর্বক নৌকা প্রতীকে ভোটারদের ভোট দিতে বাধ্য করছে।’

অভিযোগ অস্বীকার করে আওয়ামী লীগ প্রার্থী খান আহমেদ শুভ বলেন, ‘সকাল থেকেই উৎসব মুখর পরিবেশে ভোট চলছে। নির্বাচন সুষ্ঠু হচ্ছে। মির্জাপুরের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে ভোটাররা তাকে ভোট দিয়ে জয় যুক্ত করবেন।’

রিটার্নিং কর্মকর্তা এএইচএম কামরুল হাসান বলেন, ‘ভোটে কারচুপি হচ্ছে এমন কোনো অভিযোগ এখনো পাইনি। সকাল থেকে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।’

এদিকে টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক ড. মো. আতাউল গনি ও পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার নির্বাচনি এলাকা পরিদর্শন করেছেন।

নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, উপ নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে একজন জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, ৮ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ৪ প্লাটুন বিজিবি, ৮১০জন পুলিশ সদস্য ও র‌্যাবের ১০টি মোবাইল টিমসহ  প্রায় ১ হাজার ৮০০ আনসার সদস্য কাজ করছেন।

টাঙ্গাইল-৭ উপনির্বাচনে ৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করছেন। তারা হলেন, আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী খান আহমেদ শুভ (নৌকা), জাতীয় পার্টির জহিরুল হক জহির (লাঙ্গল), বাংলাদেশ ওয়ার্কাস পার্টির গোলাম নওজব চৌধুরী (হাতুড়ি), বাংলাদেশ কংগ্রেস পার্টির রুপা রায় চৌধুরী (ডাব) এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী নুরুল ইসলাম নুরু (মোটরগাড়ি)।

কাওছার/ মাসুদ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়