ঢাকা     বুধবার   ১৮ মে ২০২২ ||  জ্যৈষ্ঠ ৪ ১৪২৯ ||  ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩

এক পা হারিয়েছেন, অন্য পা টি হারাতে চান না নুরুল আমিন

জাহাঙ্গীর লিটন || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:৪৪, ২১ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ১১:২২, ২১ জানুয়ারি ২০২২
এক পা হারিয়েছেন, অন্য পা টি হারাতে চান না নুরুল আমিন

নুরুল আমিন ইটভাটা শ্রমিক।  লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার টুমচরে এই হতদরিদ্রের বাস। স্বল্প আয়েও ৪ মেয়ে ও ১ ছেলে নিয়ে ছিলো সুখের সংসার। হঠাৎ করেই পায়ে গ্যাংগ্রিন রোগ দেখা দেয়। আর এতেই জীবনের ছন্দ হারিয়ে যায় তার। 

চিকিৎসা করাতে গিয়ে সহায় সম্বল হারিয়ে বর্তমানে নিঃস্ব হয়ে পড়েছেন তিনি।  ২০২১ সালের জুনে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে
অপারেশন করে তার বাম পা কেটে ফেলতে হয়েছে। ব্যাধিটি তার একটি পা কেড়ে নিলেও অপর পা নিয়ে কোন রকমে বেঁচে আছেন। চিকিৎসক জানিয়েছেন, দ্রুত অপর পায়ের চিকিৎসা করানো না হলে সেটিও কেটে ফেলতে হবে। এতে অন্তত ৩ লাখ টাকার অধিক খরচ হতে পারে। 

মানবেতর জীবনযাপন করা এ পরিবারের দাবি, ঘরের প্রধান ব্যক্তি কর্মহীন হয়ে পড়ায় এমনিতেই খেয়ে না খেয়ে কষ্টে-সৃষ্টে দিন কাটছে তাদের। কোথায় পাবেন এই চিকিৎসার অর্থ। সরকার ও বিত্তশালীরা সাহায্য করলে হয়তো চিকিৎসা করানো সম্ভব হবে নুরুল আমিনের।

এলাকাবাসীরা জানান, ইটভাটায় কাজ করাকালীন সময়ে গ্যাংগ্রিনে আক্রান্ত হন। পায়ে পঁচন ধরলে স্থানীয়দের সহায়তায় ও পূর্ব পুরুষের রেখে যাওয়া সম্পত্তি বিক্রি করে চিকিৎসা করিয়েছেন। অপারেশন করে বাম পা কেটে ফেলতে হয়েছে। ডাক্তারের পরামর্শ অতি দ্রুত যদি অপর পা টির চিকিৎসা করানো না হয় সেটিও কেটে ফেলতে হবে। এরই মধ্যে স্ত্রীকেও হারিয়েছেন নুরুল আমিন। এ অবস্থায় তার কষ্ট আরো বেড়ে গেছে।

কাঁদতে কাঁদতে নুরুল আমিন বলেন, এক পা হারিয়েছি আমি, অন্য পা টি হারাতে চাইনা। আমি বাঁচতে চাই। বর্তমানে অপর পায়ে সমস্যা দেখা দিয়েছে। চলাচলও করতে পারছি না। একটি হুইল চেয়ারও নেই। 

সমাজের উচ্চবিত্তদের কাছে তিনি সাহায্যের জন্য আকুল আবেদন জানান। নুরুল আমিনের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন ০১৮৮৩১৩০০৬৩ এই ফোন নম্বরে।

এ ব্যাপারে লক্ষ্মীপুর সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. নুরুল ইসলামকে জানালে তিনি বলেন, খোঁজ খবর নিয়ে পরিবারটিকে সহযোগিতা করার চেষ্টা করব।

লক্ষ্মীপুর/টিপু

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়