ঢাকা     বুধবার   ১৮ মে ২০২২ ||  জ্যৈষ্ঠ ৪ ১৪২৯ ||  ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩

অ্যাপস ব্যবহার করে অর্থ হাতিয়ে নেওয়াই তাদের পেশা

ফরিদপুর সংবাদদাতা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:০১, ২৬ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ২২:০৫, ২৬ জানুয়ারি ২০২২
অ্যাপস ব্যবহার করে অর্থ হাতিয়ে নেওয়াই তাদের পেশা

ফরিদপুরের ভাঙ্গায় প্রতারক চক্রের চার সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিদের কাছ থেকে ১৪টি মোবাইল সেটসহ ৪২টি সিম উদ্ধার করা হয়। দীর্ঘদিন থেকে অ্যাপস ব্যবহার করে তারা রবি ইজি লোড থেকে সুকৌশলে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছিল।

বুধবার (২৬ জানুয়ারি) দুপুরে ফরিদপুর পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামাল পাশা।

জামাল পাশা জানান, মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) রাত ১২টার দিকে উপজেলার কালামৃধা ইউনিয়নের দেওড়া গ্রাম থেকে প্রতারক চক্রকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এ সময় প্রতারক চক্রের তিন সদস্য পালিয়ে যায়।

গ্রেপ্তার হওয়া আসামিরা হলেন ভাঙ্গা উপজেলার আটরা ভাসরা গ্রামের মো. রফিক মোল্লা (২৭),  সোনামুখীর চরের মো. মিন্টু (৩২), জাঙ্গালপাশা গ্রামের মো. মিলন (২৩), মিয়াপাড়া গ্রামের মো. সোহেল (২৫)। 

ভাঙ্গা থানার উপ-পরিদর্শক মো. আবুল কালাম আজাদ বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা স্বীকার করেছে তারা মাদকাসক্ত। তারা দীর্ঘদিন ধরে মোবাইল ফোনে বিশেষ অ্যাপস ব্যবহার করে, রবি ইজি লোডের কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে, সু-কৌশলে দোকানদারদের পিন কোড জেনে নিতো। তারপর দোকানদারদের অ্যাকাউন্টে থাকা টাকা নিজেদের রবি ইজি লোডের অ্যাপস-এ স্থানান্তর করতো। চক্রটি দীর্ঘদিন থেকে এভাবে দেশের বিভিন্ন জায়গায় অভিনব কৌশলে প্রতারণা করে আসছিল। 

আসামিদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন এবং জিডিটাল নিরাপত্তা আইনে পৃথকভাবে ২টি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ভাঙ্গা সার্কেল) ফাহিমা কাদের চৌধুরী।  
 

উজ্জ্বল/তারা 

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়