ঢাকা     বুধবার   ২৯ জুন ২০২২ ||  আষাঢ় ১৫ ১৪২৯ ||  ২৮ জিলক্বদ ১৪৪৩

স্বামী-স্ত্রী ও ভাই ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী

ভোলা সংবাদদাতা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:৫৭, ১৯ মে ২০২২  
স্বামী-স্ত্রী ও ভাই ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী

আকতার হোসেন, রেহানা বেগম লাইজু ও ইকবাল হোসেন

দেশে অষ্টমধাপের আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোলার লালমোহন উপজেলায় একই ইউনিয়নে স্বামী, স্ত্রী ও ভাই চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

বৃহস্পতিবার (১৯ মে) মনোনয়নপত্র যাচাই-বাচাইয়ের দিন তাদের মনোনয়নপত্র বৈধ বলে ঘোষণা করেন উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা।

এই তিন প্রার্থী হলেন— উপজেলার কালমা ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী মো. আকতার হোসেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী তার স্ত্রী রেহানা বেগম লাইজু ও ভাই মো. ইকবাল হোসেন।

একই পরিবারের তিনজনের প্রার্থী হওয়া নিয়ে কালমা ইউনিয়নে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। তারা কি সত্যিই নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন, নাকি আওয়ামীলীগ দলীয় প্রার্থী আকতার হোসেনের পক্ষে কাজ করছেন, এ নিয়েও প্রশ্ন রয়েছে ইউনিয়নের জনগণের মধ্যে।

এ ব্যাপারে আওয়ামীলীগের প্রার্থী আকতার হোসেন বলেন, যে যার মতো মনোনয়ন দাখিল করেছেন। বাকিটা দলীয় সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করবে, তারা নির্বাচনে শেষপর্যন্ত থাকবে কি-না।

এছাড়াও কালমা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন মো. জাকির হোসেন, ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী লোকমান হোসেন ও জাতীয় পার্টির প্রার্থী সিরাজুল ইসলাম।

রমাগঞ্জ ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ দলীয় প্রার্থী গোলাম মোস্তফার সঙ্গে স্বতন্ত্র হিসেবে লড়বেন অধ্যক্ষ জামাল উদ্দিন, আনোয়ার হোসেন রাব্বী, মোসলেহ উদ্দিন লিটন, সফিউল আলম প্রিন্স ও ইসলামী যুব আন্দোলনের প্রার্থী মাওলানা ইমাম উদ্দিন শামীম।

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলার দুই ইউনিয়নে ১২ জন চেয়ারম্যান, ৯৬ জন সাধারণ সদস্য ও ২২ সংরক্ষিত নারী সদস্য মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। যার মধ্যে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাচাইয়ের দিন কালমা ইউনিয়নে ৩ জন ও রমাগঞ্জ ইউনিয়নের ১ জন সাধারণ সদস্যের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে যায়।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আমির খসরু গাজী বলেন, যাদের মনোনয়নপত্র বৈধ হয়েছে, তারা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবেন। যাদের বাতিল হয়েছে, তাদের আপিল করার সুযোগ রয়েছে। 

মনজুর/বকুল

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়